ঋণের অভাবে বকেয়া পরিশোধের প্রচেষ্টা ব্যাহত: ট্যানার্স এসোসিয়েশন

0

সরকারের নির্ধারিত দামেই আড়তদারদের কাছ থেকে কুরবানির পশুর চামড়া কিনছে ট্যানারি মালিকরা।।এ জন্য বিভিন্ন জেলায় পাঠানো হয়েছে প্রতিনিধি।এদিকে ট্যানারি মালিকদের বিগত বছরের বকেয়া পরিশোধের দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ হাইড এন্ড স্কিন মার্চেন্টস এসোসিয়েশন। তবে ট্যানার্স এসোসিয়েশনের নেতারা বলছেন, ব্যাংক থেকে ঋণ দেয়ার কথা থাকলেও, সেটি না দেয়ায় অনেকে বকেয়া পরিশোধ করতে পারেননি।

সাধারণত পশু কুরবানির পর লবনজাত করে ২/৪ দিন রাখা চামড়া কিনে আনেন ট্যানারি মালিকরা। সে অনুযায়ী রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন জেলায় প্রতিনিধি পাঠিয়ে পশুর চামড়া কিনতে শুরু করেছে ট্যানারি মালিকরা।

বিগত বছরের তুলনায় এ বছর চামড়া নষ্ট হয়েছে কম। বাংলাদেশ হাইড এন্ড স্কিন মার্চেন্টস এসোসিয়েশনের নেতারা বলছেন, নির্ধারিত দামেই চামড়া কিনেছেন ট্যানারি মালিকরা।

তবে গেলো কয়েক বছরের চামড়া ক্রয়ের বকেয়া পরিশোধের দাবি জানান তিনি।

বকেয়া পরিশোধ না হওয়ার কারণ ব্যাখ্যা করলেন ট্যানার্স এসোসিয়েশনের ভাইস চেয়ারম্যান মিজান রহমান।

লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে চামড়া কিছুটা কম সংগ্রহ হলেও, তাতে খুব একটা সমস্যা হবে না বলেও মনে করেন তিনি।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন