শুক্রবার, জুলাই ১

শিক্ষাবিদ ড. মুহম্মদ জাফর ইকবালের অনুরোধে অনশন ভাঙলেন শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা। অনশন ভাঙলেও উপাচার্যের পদত্যাগের দাবিতে আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছে তারা। এ সময় হাসপাতালে থাকা অনশনরতরাও ক্যাম্পাসে ফেরেন। অধ্যাপক জাফর ইকবাল জানান, সরকারের উচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তারা কথা দিয়েছেন, শিক্ষার্থীদের ন্যায্য দাবিগুলো তারা দেখবেন। বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকদের আরো ব্যক্তিত্বসম্পন্ন হওয়ার পরামর্শও দেন তিনি ।

ভোর ৪ টায় শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে এসে পৌছান শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক অধ্যাপক ড. মোঃ জাফর ইকবাল সাবেক অধ্যাপক ড. ইয়াসমিন হক। এর পর ১০টা পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলেন তারা। ওসমানি মেডিকেল থেকে অসুস্থ ২০ জন কে নিয়ে আসা হয় অনশন স্থলে।

সকাল সাড়ে ১০ টায় শিক্ষার্থীদের কমোল কোমলপানীয় পানি পান করিয়ে ১৬৩ ঘন্টা পর অনশন ভঙ্গ করান ড. মোঃ জাফর ইকবাল। এ সময় আবেগে আপ্লুত হয়ে পড়েন শিক্ষার্থীরা। তার কাছে উপাচার্য ফরিদ উদ্দিন আহমেদের বিরুদ্ধে নানা অভিযোগও করেন।

পরে জাফর ইকবাল জানান, উচ্চ পর্যায়ে তার আলোচনা হয়েছে। তাদের কাছ থেকে দাবি পূরণের প্রতিশ্রুতি পেয়েছেন তিনি।

একজন অকৃতজ্ঞ উপাচার্যের জন্য শিক্ষার্থীদের জীবন অপচয় করা যাবে না মন্তব্য করে ড. জাফর ইকবাল বলেন, এখানকার শিক্ষার্থীরা আন্দোলন করে যে ইতিহাস সৃষ্টি করেছে তা বাংলাদেশে আর কেউ করতে পারে নি।

পরে অনশনরত সব শিক্ষার্থীদের কে চিকিৎসার জন্য নেওয়া হয় হাসপাতালে। তবে অনশন ভঙ্গ করলেও বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে শান্তিপূর্ণ আন্দোলন চালিয়ে যাবার ঘোষনাদেন শিক্ষার্থীরা।

গত ১৩ জানুয়ারি বিশ্ববিদ্যালয়টির বেগম সিরাজুন্নেসা চৌধুরী হলের প্রাধ্যক্ষের বিরুদ্ধে অসদাচরণসহ বিভিন্ন অভিযোগ তুলে আন্দোলন শুরু করেন হলের কয়েকশ ছাত্রী।

Share.

Leave A Reply