আর্থিক বরাদ্দ না পাওয়ায় স্থবির হয়ে পড়েছে বরিশাল নগরীর উন্নয়ন কর্মকান্ড

0

সিটি কর্পোরেশন কোনো ধরনের আর্থিক বরাদ্দ না পাওয়ায় বরিশাল নগরীর সব উন্নয়ন কর্মকান্ড স্থবির হয়ে পড়েছে। নগরবাসীকে নানা ধরনের দুর্ভোগের মধ্যে দিন কাটাতে হচ্ছে। সুশীল সমাজের দাবি, নগরীর উন্নয়নে প্রকল্প আনতে পুরোপুরি ব্যর্থ হয়েছে বর্তমান পরিষদ। যত দ্রুত সম্ভব বরাদ্দ এনে নগরবাসীর দুর্ভোগ লাঘবে উন্নয়ন কর্মকান্ড সচল করার দাবি জানান তারা।

২০১৮ সালের অক্টোবরে বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের চতুর্থ পরিষদ দায়িত্ব গ্রহণ করে। নির্বাচনের সময় এবং দায়িত্ব গ্রহনের পরপরই নগরীর উন্নয়নে ব্যাপক কর্মযজ্ঞের আশ্বাস দেয়া হয়েছিল। গত ২০ মাস ধরে আশ্বাসের মধ্যেই ঘুরপাক খাচ্ছে। সড়ক সংস্কার থেকে শুরু করে ড্রেনেজ ব্যবস্থা ভেঙ্গে পড়েছে। সামান্য বৃষ্টিতেই চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়ছে নগরী। মশায় যন্ত্রণায় অতীষ্ট নগরবাসী। রাতে বেশিরভাগ এলাকা থাকে অন্ধকারাচ্ছন্ন।

নগরীর উন্নয়নে একাধিক প্রকল্প প্রনয়ন করে সরকার থেকে বড় ধরনের বাজেট আনতে পারেনি বর্তমান পরিষদ। তাদের ব্যর্থতার কারনেই নগরবাসীর এ দুর্ভোগ, বলে মনে করেন, সুজনের সভাপতি। নগরবাসীর দুর্ভোগ লাঘবে সরকারকে বরাদ্দ দেয়ার দাবি জানান, সাবেক এই মেয়র।

বরাদ্দের টাকা হাতে পেলে ৩০টি ওয়ার্ড নিয়ে করা সমন্বিত উন্নয়ন পরিকল্পনা বাস্তবায়ন সহজ হবে বলে জানান, এই জনপ্রতিনিধি।বর্তমান পরিষদ দায়িত্ব গ্রহনের পরপরই, বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের জন্য প্রধানমন্ত্রীর ১৩০কোটি টাকা বরাদ্দ দেয়ার বিষয়টি মেয়র জোরেসোরে প্রচার করলেও তা আজও আসেনি।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন