আগামীকাল জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী

0

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী কাল। ১৯২০ সালের ১৭ মার্চ গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় সম্ভ্রান্ত শেখ পরিবারে জন্ম নেন বাংলাদেশের স্বাধীনতার রূপকার। বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীকে স্মরণীয় করতে মুজিববর্ষ হিসেবে পালিত হচ্ছে। বছরব্যাপী দিনটি দেশে–বিদেশে উদযাপন করা হবে নানা আয়োজনে। এছাড়া মুজিববর্ষে ব্যাপক কর্মসূচি ঘোষণা করেছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগসহ বিভিন্ন সংগঠন।

১৯২০ সালের ১৭ মার্চ। রাত আটটায় গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় খোকা নামে যে ছেলেটি জন্মেছিলো-সেই খোকাই ইতিহাসের ধারাবাহিকতায় হয়ে ওঠেন বঙ্গবন্ধু-বাঙালি জাতির পিতা ও স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি।পাকিস্তান আন্দোলনে হাতে খড়ি- ভাষা আন্দোলনের সিঁড়ি বেয়ে ছাত্রলীগ প্রতিষ্ঠা, আওয়ামী লীগ গড়ে তোলা, ৫৪’র নির্বাচনে যুক্তফ্রন্টের বিজয়, আইয়ুব বিরোধী আন্দোলন, বাঙালির মুক্তির সনদ ৬৬’র ৬ দফা, ৬৯’র গণঅভ্যুত্থান, ৭০ এর নির্বাচন, ৭১ এ ৯ মাসের রক্তক্ষয়ী মুক্তিযুদ্ধে স্বাধীন বাংলাদেশ। এ সব কিছুরই অগ্রনায়ক ছিলন বঙ্গবন্ধু। তাকে ঘিরে হাজার হাজার বছর ধরে পরাধীন জাতি মুক্তির স্বপ্ন দেখেছে । বঙ্গবন্ধুর জন্ম না হলে স্বাধীন বাংলাদেশই হতো না। জন্মশতবার্ষিকীতে এমন পর্যবেক্ষণ বঙ্গবন্ধুর ভাগ্নে আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিমের।

তিনি বলেন, আজন্ম কষ্ট নির্যাতন ভোগ করেও শেখ মুজিবুর রহমান, কোন দিন বাঙালির অধিকার আদায়ে পিছ পা হননি। সংসার পরিবার এমনিক জীবনের মায়া ত্যাগ করে লড়াই সংগ্রাম করেছেন এদেশের মানুষের জন্য।জন্মশতবার্ষিকীর নানা আয়োজন নতুন প্রজন্মকে বঙ্গবন্ধু সম্পর্কেআরো জানার সুযোগ সৃষ্টি করবে বলেও মনে করেন আওয়ামী লীগের এই জ্যেষ্ঠ নেতা।

১৭ মার্চ থেকে ২০২১ সালের ১৭ মার্চ পর্যন্ত সরকার মুজিববর্ষ উদযাপন করবে। দেশ-বিদেশে উদযাপিত হবে জন্মশতবার্ষিকী ও মুজিব বর্ষের আনন্দ আয়োজন।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন