অস্ত্র মামলায় মালেকের ১৫ বছর কারাদণ্ড : আরো মামলা বিচারাধীন

0

অস্ত্র মামলায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের গাড়িচালক আব্দুল মালেককে ১৫ বছর কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। দুপুরে অস্ত্র আইনে এই দণ্ডাদেশ দেন ঢাকার তৃতীয় অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ আদালতের বিচারক রবিউল আলম। এর আগে মামলায় রাষ্ট্র ও আসামীপক্ষের যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষ হয় ১৩ সেপ্টেম্বর। চলতি বছরের ১১ জানুয়ারি মালেকের বিরুদ্ধে চার্জশিট দাখিল করে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা রেব-১ এর উপ-পরিদর্শক মেহেদী হাসান চৌধুরী।

স্বাস্থ্য ও শিক্ষা অধিদপ্তরের আলোচিত ড্রাইভার আবদুল মালেককে সোমবার রেবের করা মামলায় হাজির করা হয় আদালতে। পরে দুপুরে রায় ঘোষনা করেন মহানগর দায়রা জজ রবিউল আলম। অবৈধ পিস্তল আর ম্যাগজিনসহ গুলি রাখার দায়ে আইনের দু’টি ধারায় আলাদাভাবে ১৫ বছর করে কারাদণ্ডের আদেশ দেন তিনি।

রায় ঘোষণার পর রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী জানান, ১৩ জনের স্বাক্ষ্য আমলে নিয়েই রায় দিয়েছে আদালত।

রায়ে অসন্তোষ প্রকাশ করে উচ্চ আদালতের মাধ্যমেই ন্যায় বিচার প্রত্যাশা করেন আসামিপক্ষের আইনজীবী।

এছাড়া মালেকের বিরুদ্ধে দুর্নীতি দমন কমিশনের মামলাও রয়েছে বিচারাধীন। গেল বছরের ২০ সেপ্টেম্বর তুরাগের বাসায় অভিযান চালিয়ে মালেকের বাসা থেকে বিদেশি পিস্তল, ম্যাগজিন গুলি ও জাল টাকা উদ্ধার করে রেব। একই সাথে তুরাগ থানায় দায়ের করা হয় অস্ত্র ও বিশেষ আইনে দু’টি মামলা।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন