নাচের ছন্দে জীবনের গল্প বললেন শিল্পীরা। সমকালীন সময় আর সমাজ নিয়ে এগারোজন তরুণ শিল্পীর ভাবনারও প্রকাশ ঘটলো নাচের মধ্যদিয়েই। জার্মান সাংস্কৃতিক কেন্দ্র গ্যোটে ইনস্টিটিউট ও শিল্পকলা একাডেমির যৌথ আয়োজনে দু’দিনের সমকালীন নৃত্য উৎসব অনুষ্ঠিত হয়েছে শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় নাট্যশালা মিলনায়তনে।

সমসাময়িক নাচের দুনিয়াটা বদলে গেছে। সেখানে চলছে ভাঙা গড়ার খেলা। নৃত্যের ভাষায়, ভাবনা প্রকাশের এই ঘরনা তরুণ শিল্পীদের জন্য সত্যিকারের অনুপ্রেরণা। দ্বৈতসত্তার একজন মানুষের পরিচয় সংকটের গল্পকে সমসাময়িক নৃত্যের মাধ্যমে উপস্থাপন করেন নৃত্যশিল্পী আরিফুল ইসলাম অর্ণব। গল্পের নাম ‘মানুষ’।

জার্মানির সমকালীন নৃত্যশিল্পী ও কোরিওগ্রাফার টমাস বুঞ্জারের সঙ্গে কর্মশালার মাধ্যমে বাংলাদেশের ১১ তরুণ নৃত্যশিল্পীকে এ উৎসবের জন্য বাছাই করা হয়েছে। ‘ইয়াং কোরিওগ্রাফারস প্লাটফর্ম’ প্রজেক্টের ধারাবাহিকতায় তরুণ ও প্রতিভাবান বাংলাদেশী নৃত্যশিল্পীদের খুঁজে বের করাই এই প্রজেক্টের উদ্দেশ্য। শাস্ত্রীয় নৃত্যের গাম্ভীর্যের খোলশ ভেঙে নতুনদিনের নতুন সম্ভাবনার গল্প বললো তরুণ নৃত্যশিল্পীদের সমসাময়িক নৃত্যের এই পরিবেশনা।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন