সিরাজগঞ্জ ও জামালপুরে বন্যা পরিস্থিতি অপরিবর্তিত

0

ভারী বৃষ্টি ও উজান থেকে নেমে আসা ঢলে সিরাজগঞ্জ ও জামালপুরে বন্যা পরিস্থিতি অপরিবর্তিত রয়েছে। তবে বগুড়ায় যমুনা নদীর পানি আরো বেড়েছে।

সকাল ৬টায় সিরাজগঞ্জ শহর রক্ষা বাঁধ হার্ডপয়েন্ট এলাকায় যমুনার পানি প্রবাহ ১৩ দশমিক ৩২ মিটার রেকর্ড করা হয়েছে। যা বিপদ সীমার ৩ সেন্টিমিটার নিচে। পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় নিম্নাঞ্চলগুলোতে অকাল বন্যার আশংকা করা হচ্ছে। প্রতিদিন নতুন-নতুন এলাকা প্লাবিত হচ্ছে। এছাড়া অভ্যন্তরীণ নদ-নদীগুলোতে পানি বৃদ্ধি অব্যাহত রয়েছে। চরের নিচু এলাকায় পানি ঢুকে পড়েছে। ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ফসলি জমি।

জামালপুরে গত ২৪ ঘণ্টায় যমুনা নদীর পানি বিপদসীমার ৫ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। স্থানীয় পানি উন্নয়ন বোর্ড জানিয়েছে, যমুনার পানি বৃদ্ধির ফলে ইসলামপুর ও দেওয়ানগঞ্জ উপজেলার নোয়ারপাড়া, চিনাডুলী, বেলগাছা,পাথর্শী ও কুলকান্দি ইউনিয়নের বিস্তীর্ণ এলাকার নিন্মাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে।নিন্মাঞ্চলে ৩১০ হেক্টর রোপ আমন প্লাবিত হয়েছে। বন্যার পানি প্রবেশ করায় ৪৬টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে।

এদিকে, বগুড়ার সার্বিক বন্যা পরিস্থিতির আরো অবনতি হয়েছে। যমুনা নদীর পানি গত ২৪ ঘণ্টায় আরো বেড়েছে। যমুনা নদীর ৪ সেন্টিমিটার বেড়ে বর্তমানে বিপদ সীমার ২১ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। পানিতে নতুন নতুন এলাকা প্লাবিত হচ্ছে। এবারের বন্যায় পূর্ব বগুড়ার সারিয়াকান্দি, সোনাতলা ও ধুনট উপজেলায় ৩১টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পাঠদান স্থগিত করা হয়েছে।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন