সারাদেশে ডেঙ্গু পরিস্থিতির এখনো কোনো উন্নতি হয়নি

0

সারাদেশে ডেঙ্গু পরিস্থিতির এখনো কোনো উন্নতি হয়নি। ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে নোয়াখালী ও ময়মনসিংহে গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন আরো দু’জন। এছাড়া এ সময়ে ঢাকাসহ সারাদেশে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ২ হাজার ১৭৬ জন। এদিকে, ঢাকার সোহরাওয়ার্দী হাসপাতাল থেকে আজ বেশ ক’জন রোগী সুস্থ হয়ে বাড়ী ফিরলেও নতুন ভর্তি হয়েছেন ২৯ জন। অন্যদিকে, স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. জাহিদ মালেক বলেছেন, ডেঙ্গু সমস্যা অনেকাংশে কমে আসছে। কিন্তু মশা বৃদ্ধির হার কমানো যায়নি। তবে তার আশা– আর কিছুদিনের মধ্যেই কমে আসবে মশা।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের তথ্য মতে, গেলো ১০ দিনে সারাদেশে ২০ হাজার ৩৮৩ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। আর আগের মাস- জুলাইয়ের ৩১ দিনে আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ১৬ হাজার ২৫৩ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশের হাসপাতালে ডেঙ্গু রোগী ভর্তির সংখ্যা ২ হাজার ১৭৬। এর মধ্যে শুধু ঢাকাতেই ভর্তি এক হাজার ৬৫ জন এবং ঢাকার বাইরে এক হাজার ১১১ জন।

এটি ঢাকার শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ডেঙ্গু রোগীদের চিকিৎসার চিত্র। গত কয়েকদিনে, এই হাসপাতাল থেকে বেশ ক’জন ডেঙ্গু রোগী সুস্থ হয়ে বাড়ী ফিরলেও একদিনে নতুন ভর্তি হয়েছেন আরো ২৯ জন।

হাসপাতালের পরিচালক জানান, এখানে চিকিৎসা নিতে রোগীদের কোনো সমস্যা নেই। ডেঙ্গু পরীক্ষা কিংবা চিকিৎসায়ও কোনো ঘাটতি নেই বলেও দাবি তার।

এদিকে, ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা বাড়ায় সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে খোলা হয়েছে অতিরিক্ত আরেকটি ওয়ার্ড। দুপুরে সেই ওয়ার্ড উদ্বোধন করেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. জাহিদ মালেক। এ সময় তিনি বিভিন্ন ওয়ার্ড ঘুরে খোঁজ-খবর নেন রোগীদের।

পরে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, সারাদেশে কমছে ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা। পরিস্থিতি শিগগিরই পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে আসবে বলেও প্রত্যাশা তার।

ঈদের ছুটিতে ডেঙ্গুর চিকিৎসায় কোথাও যেন নার্স ও ডাক্তারের কোনো ঘাটতি না হয়, সেজন্য মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা তুলে ধরেন মন্ত্রী। সেই সাথে কোথাও যেনো ময়লা ও পানি জমে না থাকে, সে বিষয়ে পদক্ষেপ নিতে সবার প্রতি আহ্বানও জানান স্বাস্থ্য মন্ত্রী। 

 

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন