সাত জানুয়ারি অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে কুষ্টিয়া ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে চতুর্থ সমাবর্তন

0

উৎসবমুখর পরিবেশের মধ্যদিয়ে আগামীকাল সাত জানুয়ারি, অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে কুষ্টিয়া ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে চতুর্থ সমাবর্তন। এই সমাবর্তনকে ঘিরে পুরো বিশ্ববিদ্যালয়কে সাজানো হয়েছে বর্ণিল সাজে। গড়ে তোলা হয়েছে কয়েক স্তরের নিরাপত্তা বেষ্টনী। তবে প্রতিষ্ঠার এতো বছর পরও– এ বিশ্ববিদ্যালয়ে রয়েছে আবাসন সংকটসহ পরিবহন সমস্যা।

২০০২ সালে সর্বশেষ অনুষ্ঠিত হয় কুষ্টিয়া ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তন। দীর্ঘ ১৫ বছর পর চতুর্থ সমাবর্তনকে ঘিরে বর্ণিল সাজে সাজানো হয়েছে পুরো ক্যাম্পাস। এখন চলছে শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি। এই সমাবর্তনে ১৯৯৫ সাল থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত এমফিল ও পিএইচডি ডিগ্রীধারী ন’হাজার ৩৭২ জন গ্রাজুয়েটকে সনদ প্রদান করবেন আচার্য ও রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ। এ ছাড়া ৮০ জনকে প্রদান করা হবে স্বর্ণপদক।  এদিকে, সমাবর্তনের মধ্যদিয়ে দীর্ঘদিনের আবাসন সংকট ও পরিবহন সমস্যার সমাধান হবে— এমনই প্রত্যাশা শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের।

এদিকে, আয়োজন সফল করতে দীর্ঘ তিন মাস কাজ করে যাচ্ছে ২৩টি কমিটি। রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ ক্যাম্পাসে উদ্বোধন করবেন– জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের মুরালসহ চারটি স্থাপনা। শনিবার কুষ্টিয়ায় পৌঁছে রাষ্ট্রপতি শিলাইদহ কুঠিবাড়িতে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে যোগদানসহ সন্ধ্যায় লালন একাডেমিতে শুনবেন সাঁইজির গান। পরে রাত আটটার দিকে, পেশাজীবীদের সাথে মতবিনিময় করবেন রাষ্ট্রপতি। আর কুষ্টিয়া ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে সমাবর্তনে যোগ দেবেন রোববার দুপুর

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন