সহায়ক সরকার নিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে উদ্যোগ নেয়ার আহ্বান

0

দাম্ভিকতা বাদ দিয়ে, সব রাজনৈতিক দলের সঙ্গে সংলাপের মাধ্যমে– নির্বাচনকালীন সহায়ক সরকার নিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে ‘উদ্যোগ’ নেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন, বিএনপি মহাসচিব– মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। বিকেলে বিএনপি চেয়ারপার্সনের গুলশান কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য– ‘দেশকে রাজনৈতিক অস্থিতিশীলতার মধ্যে ঠেলে দিয়েছে’।

বর্তমান সরকারের চার বছর পূর্তিতে প্রধানমন্ত্রীর দেয়া এই ভাষণে, ‘নির্বাচনকালীন সহায়ক সরকার’ নিয়ে দিক-নির্দেশনা নেই। তবে হুঁশিয়ারি রয়েছে, আগামী নির্বাচনকে ঘিরে– অরাজক পরিস্থিতির অপচেষ্টা মোকাবিলার।

প্রধানমন্ত্রীর ভাষণের আনুষ্ঠানিক প্রতিক্রিয়া জানাতেই– বিকেলে সংবাদ সম্মেলন ডাকে বিএনপি। শুরুতেই দলের মহাসচিব বলেন, শেখ হাসিনার ভাষণের মধ্যদিয়ে, জনগণের আশা-আকাঙ্খাকে ‘পদদলিত’ করা হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী দেশের উন্নয়নের যে খতিয়ান দিয়েছেন, তা জনগণকে বিভ্রান্ত করার প্রয়াস বলে মন্তব্য করেন মির্জা ফখরুল। উন্নয়নের নামে মেগা প্রজেক্ট দিয়ে শাসকগোষ্ঠি জনগণের টাকা বিদেশে পাচার করেছে বলে তার অভিযোগ।

শেখ হাসিনার ভাষণে দেশে সঙ্কট আরো বাড়বে মন্তব্য করে– প্রধানমন্ত্রীকে আবারো সমঝোতার আহ্বান জানান বিএনপি মহাসচিব।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী বার বার সংবিধানের দোহাই দিলেও, পঞ্চদশ ও ষোড়শ সংশোধনীর মাধ্যমে– আওয়ামী লীগের ক্ষমতা পাকাপোক্ত করা হয়েছে। সংবিধান ও গণতন্ত্র সব সময় সমানতালে চলে না বলে মন্তব্য করে, রাজনৈতিক সঙ্কট সমাধানে– প্রধানমন্ত্রীকে শিগগিরই প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার আহ্বান জানান, মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

শেয়ার করুন।