সম্মেলনকে ঘিরে ব্যাপক তোড়জোড় শুরু হয়েছে জাতীয় শ্রমিক লীগের নেতাকর্মীদের মাঝে

0

সম্মেলনকে ঘিরে ব্যাপক তোড়জোড় শুরু হয়েছে জাতীয় শ্রমিক লীগের নেতাকর্মীদের মাঝে। বিশেষ করে কেন্দ্রীয় শীর্ষ দুই পদ লাভে আওয়ামী লীগের শীর্ষ মহলে জোর লবিং করছেন তারা। অর্ধডজন প্রার্থী ওই দুই পদ লাভের প্রত্যাশা করছেন। ৯ নভেম্বর সম্মেলনে বিতর্কের বাইরের দক্ষ সংগঠককে খুঁজে নেবে দল এমনটাই জানিয়েছে আওয়ামী লীগ।

জাতীয় সম্মেলনের পর অধিভুক্ত অর্ধেক ইউনিট কমিটি গঠন করেছে জাতীয় শ্রমিক ২০১২ সালের ১৭ জুলাই সংগঠনটির সর্বশেষ জাতীয় সম্মেলন অনুষ্ঠিত হওয়ার দীর্ঘ সময় পর আসছে ৯ নভেম্বর হতে যাচ্ছে জাতীয় সম্মেলন।

নেতারা বলছেন, ৩৫ সদস্যের কেন্দ্রীয় কমিটিতে স্থান পাওয়ার মত যোগ্য নেতা আছে দেশজুড়ে। সভাপতি শুকুর মাহমুদ এবং সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলামই প্রস্ততি নিচ্ছেন আসন্ন সম্মেলনের। শীর্ষ পদগুলোতে লড়তে মাঠে আছেন ১ ডজনেরও বেশি নেতা।সভাপতি পদ পেতে আগ্রহী বর্তমান কার্যকরী সভাপতি, সহ-সভাপতিসহ অন্তত ছয় প্রার্থী। এছাড়া সাধারণ সম্পাদক পদ পেতে তিন যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, একজন সাংগঠনিক সম্পাদক, প্রচার সম্পাদকসহ অন্তত ছয় প্রার্থী রয়েছেন।

শীর্ষ পদসহ আগামী কমিটি থেকে বাদ পড়বে টেন্ডার, চাঁদাবাজি এবং ক্যাসিনোকান্ডে জড়িতরা। স্থান পাবে নতুন নেতৃত্ব এমনটাই প্রত্যাশা মাঝারি সারির নেতাদের। ত্যাগী ও স্বচ্ছ ভাবমূর্তির নেতৃত্ব আসবে এ শীর্ষ শ্রমিক সংগঠনের শীর্ষে এমনটাই জানালেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন