শিশু মুক্তামনির প্রথম পর্যায়ের অস্ত্রোপচার সফলভাবে সম্পন্ন

0

বিরল রোগে আক্রান্ত সাতক্ষীরার শিশু মুক্তামনির প্রথম পর্যায়ের অস্ত্রোপচার সফলভাবে সম্পন্ন হয়েছে বলে জানিয়েছেন, ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চিকিৎসকরা। সকাল ৮টা ২০ মিনিটে, মুক্তামনিকে অস্ত্রোপচার শুরু হয়। প্রায় আড়াই ঘণ্টার অস্ত্রোপচারে তার ডান হাতের আক্রান্ত অংশটি ফেলে দেওয়া হয়েছে বলে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন।

জন্মের মাত্র দেড় বছরের মধ্যে শরীরে দেখা দেয়, মার্বেলের মতো ছোট্ট গোটা। এরপর থেকে সেটি বাড়তে থাকে। দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে নিয়েও, মেলেনি সমাধান। একসময় তার আক্রান্ত ডানহাতটি গাছের গুড়ির রূপ নিয়ে প্রচণ্ড ভারি হয়ে ওঠে এবং পচন ধরার পাশাপাশি জন্ম নেয়, ছোট পোকাও।

বিষয়টি গণমাধ্যমে এলে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেন অনেকে। ঢাকা মেডিকেলের বার্ন ইউনিটের চিকিৎসকরা, তার চিকিৎসার দায়িত্ব নেন। গত ১১ জুলাই মুক্তামনিকে ভর্তি করা হয়, ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। এসময় তার চিকিৎসার জন্য গঠন করা হয় মেডিকেল বোর্ড।

অবশেষে ২০ সদস্যের চিকিৎসকদের একটি দল জটিল এই অস্ত্রোপচার করলেন শনিবার। বেলা সোয়া ১১টার দিকে অস্ত্রোপচার কক্ষ থেকে বেরিয়ে সংবাদ সম্মেলনে আসেন চিকিৎসক দল। অস্ত্রোপচার করে তার হাত থেকে তিন কেজি মাংসপিণ্ড ফেলে দেওয়া হয়েছে। এগুলো পরীক্ষার জন্য পরীক্ষাগারে পাঠানো হয়েছে। চিকিৎসকরা জানান, অস্ত্রোপচারের পর প্রত্যাশার চেয়েও মুক্তামনি ভালো আছে। তবে সে ঝুঁকিমুক্ত না– অন্তত ৫-৬ সপ্তাহ পর, তা নিশ্চিত করা যাবে বলে জানান চিকিৎসকরা।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন

eleven − 1 =

Test