শিগগির অভিযানে নামবে বিএসটিআই

0

কার্বোনেটেড বেভারেজ হিসেবে অনুমোদন নিয়ে যারা সঠিক মান ধরে রাখতে পারেনি, তাদের বিরুদ্ধে শিগগির অভিযানে নামবে বিএসটিআই এবং নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষ। এরই মধ্যে সংশ্লিষ্ট দপ্তরগুলোতে চিঠি দিয়ে এনার্জি ড্রিংকসের আমাদানি ও বাজারজাত নিষিদ্ধ করা হয়েছে বলে জানান নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান।এনার্জি ড্রিংকসের নামে সাধারণ মানুষ যা খাচ্ছে তার পরিণাম ভয়াবহ বলে জানান পুষ্টি বিজ্ঞানীরা।

‘এনার্জি ড্রিংকস নিষিদ্ধ’ এমন খবর দেশের গণম্যমগুলোতে বড় বড় শিরোনামে উঠে আসে। এই তালিকায়, ভিগো-বি, ম্যান পাওয়ার, হর্স ফিলিংস, রয়েল টাইগার ও স্পিডের নাম। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক প্রতিবেদনেও এমন সাতটি পানীয়কে ক্ষতিকর হিসেবে চিহ্নিত করা হয়। দীর্ঘ পরীক্ষা- নীরিক্ষার পর সব ধরণের এনার্জি ড্রিংকস আমদানি ও বাজারজাত নিষিদ্ধ করে নিরাপদ খাদ্য কর্তপক্ষ। শিগগিরি এসব বন্ধে মাঠে নামবে প্রতিষ্ঠানটি।

বিএসটিআই বলছে, অনেক নামী দাবি ব্রান্ডের এসব কোমল পানীয়তে সহনীয় মাত্রার চে’ কয়েকগুন ক্যাফেইন মিশিয়ে বাজারজাত করা হচ্ছে।

পুষ্টি বিজ্ঞানীরা বলছেন, মানুষ জেনে শুনে এ বিষ পান করছে। দীর্ঘ মেয়াদে উচ্চ মাত্রার ক্যাফেইনের আসক্তি মানুষকে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দিতে পারে।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ক্যাফেইন এক পর্যায়ে মানুষকে মাদকাসক্তির দিকেও ঠেলে দেয়।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন