শহীদ বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানালেন রাষ্ট্রপতি

0

শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবসে ঢাকার মিরপুর বুদ্ধিজীবীদের স্মৃতিসৌধে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ। ভোরে রাষ্ট্রপতির পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষে তাঁর সামরিক সচিব মেজর জেনারেল জয়নাল আবেদীন শ্রদ্ধা জানান। এদিকে, বেলা ১১টার দিকে বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানানিয়েছেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। এ সময় বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, যে গণতন্ত্রের জন্য বুদ্ধিজীবীদের প্রান দিতে হয়েছে পাকিস্তানি বর্বর বাহিনীর হাতে তা আজ বাংলাদেশে অনুপস্থিত। ফুল দিতে এসে ওবায়দুল কাদের জানান, বুদ্ধিজীবী হত্যার সাথে জড়িত পাকিস্তানী দোসরদের বিদেশ থেকে ফিরিয়ে আনার চেষ্টা চলছে।

বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধ প্রাঙ্গণে হাজির হয়ে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান রাষ্ট্রপতি মোহাম্মদ আব্দুল হামিদ। শ্রদ্ধা নিবেদনের পর তিনি শহীদ বেদীর সামনে কিছুক্ষণ দাঁড়িয়ে নীরবতা পালন করেন। এ সময় বিউগলে বেজে ওঠে করুণ সুর ।

সশস্ত্র বাহিনীর একটি চৌকস দল গার্ড অব অনারে শহীদদের বেদীতে ফুল দেয়া হয় প্রধানমন্ত্রী’র পক্ষ থেকে।

এরপর সর্বস্তরের মানুষের জন্য উন্মুক্ত করে দেয়া হয় শ্রদ্ধ নিবেদন মঞ্চ। ফুল দেয়া শেষে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের জানান, যারা দেশের অমূল্য সম্পদ বুদ্ধিজীবীদের নির্বিচারে হত্যায় সহযোগিতা করেছে তাদের সবার বিচার সম্পন্ন করা হবে।

বৃদ্ধিজীবীদের স্মরণে ফুল দেয়া শেষে জাতীয় পার্টির মহাসচিব রুহুল আমিন হাওলাদার বলেন, সব সময় গণতন্ত্রের পক্ষে থাকতে চায় তারা।

বেলা বাড়ার সাথে জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তানদের স্মৃতি সৌধে বিনম্র শ্রদ্ধা নিবেদনের ঢল নামে। সরকারী-বেসরকারী বিশ্ববিদ্যাল, বিভিন্ন স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীরাও ফুল দিতে আসেন শহীদদের বেদীতে।

এদিকে, সব শেষে ফুল দিতে আসেন বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া। এ সময় বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতারাও শ্রদ্ধা জানান। পরে মির্জা ফখরুল বলেন, গণতন্ত্র সুসংহত করার সংগ্রামে বুদ্ধিজীবীরা শহীদ হলেও বাংলাদেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠিত হয়নি।

৭১’এর ১৪ই ডিসেম্বর পাক হানাদার বাহিনীর কাছে নৃসংশভাবে নিহত বুদ্ধিজীবী পরিবারের সদস্যরাও প্রতিবছরের স্বজনদের বিদেহী আত্নার মাগফেরাত কামনা করতে স্মৃতিসৌথে সমবেত হন।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন