রোহিঙ্গারা হাত বাড়ালেই মিলছে বাংলাদেশের জাতীয় পরিচয়পত্র ও পাসপোর্ট

0

কক্সবাজারের ক্যাম্প থেকে সারাদেশে ছড়িয়ে পড়া রোহিঙ্গারা হাত বাড়ালেই পাচ্ছে বাংলাদেশের জাতীয় পরিচয়পত্র, জন্ম নিবন্ধন কার্ড এমনকি পাসপোর্ট। গেল চার মাসে শুধু পাসপোর্ট করতে এসে ধরা পরেছে ৪৬ রোহিঙ্গা। এছাড়া, বাংলাদেশের পাসপোর্ট ব্যবহার করে বিদেশে পাড়ি দেয়ার সময়ও ধরা পড়েছে কয়েকজন। এজন্য পাসপোর্ট অফিসের কর্মকর্তারা দুষছেন অসাধু জনপ্রতিনিধি আর পুলিশ প্রশাসনকে। আর সুজন বলছে, প্রশাসনের নমনীয়তায় এসব প্রতারণার সঙ্গে জড়িতরা পার পেয়ে যাচ্ছে।

বৃহস্পতিবার রাতে ঢাকা চট্টগ্রাম মহাসড়কের সিটি গেইট এলাকা থেকে বাংলাদেশের পাসপোর্টসহ তিন রোহিঙ্গা নাগরিককে আটক করে পুলিশ। চট্টগ্রাম থেকে ঢাকা আর সেখান থেকে তুরস্কে পারি জমানোর মিশন নিয়ে কক্সবাজারের ক্যাম্প থেকে পালিয়ে এসেছে তারা। এর আগে নোয়াখালী সেনবাগের ঠিকানায় জন্মনিবন্ধন, জাতীয় পরিচয়পত্র ও পাসপোর্ট সংগ্রহ করেন তারা। কিন্তু সেখানকার জনপ্রতিনিধিদের ভুমিকা, পাসপোর্টের সময় পুলিশ ভেরিফিকেশনইবা কিভাবে হলো সে প্রশ্নের উত্তর মেলেনি এখনো।

পাসপোর্ট অফিসের কর্মকর্তারা বলছেন, রোহিঙ্গা নাগরিকরা আসল জন্ম নিবন্ধন ও জাতীয় পরিচয়পত্র ব্যবহার করায় তাদের পক্ষে পরিচয় সনাক্ত করা কঠিন হয়ে পড়ছে।

সুশাসনের জন্য নাগরিক সুজন মনে করে, শুধুমাত্র কর্তৃপক্ষের উদাসীনতা বা অবহেলায় রোহিঙ্গারা বাংলাদেশের পরিচয় পাচ্ছেন এমনটি ভাবার কারন নেই। এর সঙ্গে দুর্নীতির সম্পর্ক রয়েছে।

রোহিঙ্গারা যাতে ছড়িয়ে পড়তে না পারে সেজন্য চট্টগ্রামের বিভিন্ন পয়েন্টে নিয়মিত চেকপোস্ট বসাচ্ছে পুলিশ। আইন অমান্য করলে কঠোর হবার ঘোষণা পুলিশের।

রোহিঙ্গাদের বাংলাদেশের জাতীয় পরিচয়পত্র , জন্ম নিবন্ধন ও পাসপোর্ট পেতে যারা সহায়তা করছেন, তাদেরকে চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনতে না পারলে, এই সংকট নিরসন করা অসম্ভব বলে মনে করেন সংশ্লিষ্টরা।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন