রোমাঞ্চকর ম্যাচ জিতে প্রথমবার বিশ্বকাপ ফুটবল ফাইনালে ক্রোয়েশিয়া

0

রোমাঞ্চকর এক ম্যাচ জিতে প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপের ফাইনালে ক্রোয়েশিয়া। দ্বিতীয় সেমিফাইনালে ইংল্যান্ডকে ২-১ গোলে হারায় ক্রোয়েটরা। ইতিহাস গড়ার পথে স্বপ্নের শিরোপা মঞ্চে ক্রোয়েশিয়া। ফাইনালে ক্রোয়েশিয়ার প্রতিপক্ষ সাবেক চ্যাম্পিয়ন ফ্রান্স।

ফুটবল মহাযজ্ঞে প্রথমবার দেখা। তাতে কি। আগে সাতবার পরিক্ষা হয়েছে দু’দলের। সাফল্য বেশি ইংলিশদের। এবারের বিশ্ব মহারণেও আধিপত্ব হ্যারি কেনদের। কম যায়নি ক্রোয়েশিয়াও। দুই ইউরোপিয়ানের সেমির লড়াইয়ে চোখ পুরো বিশ্বের।

মস্কোর লুঝনিকি স্টেডিয়ামের গ্যালারীতে উত্তেজনার ঢেউ ম্যাচের শুরুতেই। গুছিয়ে উঠার আগেই ধাক্কা ক্রোয়েশিয়া শিবিরে। কায়রন ত্রিপিয়ারের ফ্রি-কিকে হতাশা ক্রোয়েটদের। শুরুর পাঁচ মিনিটেই ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ ইংল্যান্ডের।

গোল পেয়ে রক্ষণে শক্ত থ্রি লায়নসরা। আক্রমণে ধার থাকলেও কাজে আসেনি রাকিটিচদের। ইংলিশ প্রাচীরে বাধা ক্রোয়েটরা। কাউন্টার অ্যাটাক থেকে ব্যবধান বাড়ানোর চেষ্টাও করেছে ইংল্যান্ড। কিন্তু সহজ সুযোগগুলো কাজে লাগাতে পারেনি হ্যারি কেনরা।

প্রথর্মাধে পরিচ্ছন্ন ফুটবল খেলেছে দু’দল। কার্ড বের করার ঝামেলায় যেতে হয়নি রেফারিকে। বল দখলে এগিয়ে থাকলেও গোলের দেখা না পাওয়ায় হতাশা ক্রোয়েটদের। এক গোলে স্বস্তির বিরতিতে যায় ইংল্যান্ড।

দ্বিতীয়ার্ধে গুছিয়ে আক্রমণে গেছে ক্রোয়েশিয়া। কিন্তু ইংল্যান্ডের ডি বক্সেই এলোমেলো ক্রোয়েশিয়ার আক্রমণগুলো। দুরপাল্লার শটে গোল পাওয়ার চেষ্টাও ব্যর্থ ক্রোয়েটদের। প্রতিপক্ষকে রুখে ব্যবধান বাড়ানোর সুযোগও তৈরী করেছে সাউথগেটের শিষ্যরা।

ক্রোয়েটরা ইংল্যান্ডের দেয়াল ভাঙ্গে ৬৮ মিনিটে। ইংলিশদের জালে বল জড়ান ইভান পেরিসিচ।ম্যাচে ফেরে দালিচের শিষ্যরা।

সমতায় ফিরে গোলক্ষুধা আরো বাড়ে ক্রোয়েশিয়ার। রাকিটিচদের গতিময় শট পরিক্ষায় ফেলে ইংল্যান্ড গোলরক্ষককে। ক্রোয়েশিয়ার সুযোগ নষ্টের মহোৎসবে বড় সুযোগই হাতছাড়া হয়েছে ৭২ মিনিটে।

নির্ধারিত সময়ে সমতা থাকায় ম্যাচ গড়ায় অতিরিক্ত সময়ে। এখানেই বাজিমাত ক্রোয়েটদের। মারিও মাঞ্জুকিচে মিমাংসা রাশিয়া বিশ্বকাপের দ্বিতীয় সেমিফাইনালের।

পিছিয়ে থেকে ম্যাচ জয় ক্রোয়েশিয়ার। অধরা শিরোপা জয়ের পথে আরো একধাপ ক্রোয়েটদের। প্রথমবার শিরোপা মঞ্চে জায়গা করে এরই মধ্যে বিশ্বকে নিজেদের রুপ দেখালো দালিচের শিষ্যরা। ফলে ৫২ বছর পর ফাইনালে খেলার স্বপ্ন ভঙ্গ ইংল্যান্ডের।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন