রাশিয়া বিশ্বকাপের ফাইনালে ফ্রান্সের প্রতিপক্ষ কোন দেশ হতে যাচ্ছে

0

রাশিয়া বিশ্বকাপের ফাইনালে ফ্রান্সের প্রতিপক্ষ কোন দেশ হতে যাচ্ছে। ইংল্যান্ড নাকি ক্রোয়েশিয়া। মস্কোর লুঝনিকি স্টেডিয়ামে মিলবে সেই উত্তর। বিশ্বকাপের দ্বিতীয় সেমিফাইনালে রাত ১২টায় মুখোমুখি হতে যাচ্ছে ইংল্যান্ড-ক্রোয়েশিয়া। ইংল্যান্ড কোচ গ্যারেথ সাউথগেট জানিয়েছেন–এবার তারা শিরোপার দীর্ঘ অপেক্ষা ঘুচাতে প্রস্তত। আর ক্রোয়েশিয়ান কোচ জ্লাতকো দালিচের বিশ্বাস তার শিষ্যরা ইতিহাস গড়ার খুব কাছে।

ইটস কামিং হোম। হঠাত করেই এই গানটা স্থান করে নিয়েছে ইংল্যান্ডে টপ চার্টে। ২২ বছর আগের এই গান কেনইবা ইংলিশদের মুখেমুখে। রাশিয়ার রাস্তায় রাস্তায় এমনকি এই গানের সুর স্টেডিয়ামের গ্যালারিতেও তুলছেন ইংলিশ সমর্থকরা। গানটির অর্থ ফুটবল বাড়ি আসছে। তার মানে ইংলিশ সমর্থকদের আশা ৫২ বছর পর এবার ফুটবলের জনক ইংল্যান্ড ট্রফি নিয়ে ফিরবে জন্মভূমিতে। গানটি তৈরী হয়েছিলো ১৯৯৬তে। ইউরোর আয়োজক ছিলো ইংলিশরা। কিন্তু কাপ জিতা হয়নি সেবার। ১৯৬৬ তে বিশ্বকাপ জিতার পর এখনো শিরোপা খড়ায় ইংলিশরা। গানটির সার্থকতা এবার দেখতে পাচ্ছেন ইংল্যান্ড কোচ সাউথগেট। কারন ২২ বছর আগে তার পেনাল্টি মিসেই ইংল্যান্ড বিদায় নিয়েছিলো ইউরো থেকে।

তারুণ্যেই নির্ভার ইংল্যান্ড কোচ। হ্যারি কেইনদের মতো তরুণরাই ইংলিশদের লালিত স্বপ্ন পুরণের পথে। ১৯৯০’র পর প্রথম সেমিফাইনালে মাঠে নামতে যাচ্ছে ইংল্যান্ড। এবার আর অপেক্ষা বাড়াতে চায় না ইংলিশরা। বিশ্বমঞ্চে যেখানে সাফল্য সহজেই ধরা দেয়না ইংল্যান্ডকে। সেখানে ক্রোয়েশিয়ার ইতিহাস আলাদা। ৯৮ তে প্রথম অংশ নিয়েই খেলেছিলো সেমিফাইনালে। ২০ বছর পর আবার সেমিতে ক্রোয়েটরা। রাকিটিচ-মদ্রিচদের উপর অনেক আস্থা কোচ দালিচের। তার বিশ্বাস সোনালী এই প্রজন্মই নতুন কিছু করে দেখাবে। লুঝনিকি স্টেডিয়ামেই হবে রাশিয়া বিশ্বকাপের ফাইনালের মহারণ। তার আগেই শিরোপা মঞ্চ পরখ করা হয়ে যাচ্ছে ইংল্যান্ড-ক্রোয়েশিয়ার। তবে এক দলের বিদায় হবে এখান থেকেই। আর অন্যদল নিজেদের পতাকা বসাবে ফ্রান্সের পাশে।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন