রাজধানীতে গাড়ি ভাংচুরসহ বেশ কয়েকটি জায়গায় বিচ্ছিন্ন ঘটনা

0

বিএনপি’র সমাবেশকে ঘিরে, রাজধানীতে গাড়ি ভাংচুরসহ বেশ কয়েকটি জায়গায় বিচ্ছিন্ন ঘটনা ঘটেছে। ঢাকার প্রবেশ পথগুলোতেও ছিলো, পুলিশের কড়া নিরাপত্তা বেষ্টনী। সমাবেশে যোগ দিতে আসা বিএনপি নেতা-কর্মীদের মাইলের পর মাইল, পায়ে হেটে আসতে হয়েছে। পুলিশ কড়াকড়ি আরোপ করায়, নগরজীবনেও নেমে আসে চরম দুর্ভোগ। তবে এই ভোগান্তির জন্য সরকারকেই দায়ী করেন, সাধারণ মানুষ। বাতেন বিপ্লবের প্রতিবেদন বিস্তারিত।

রাজধানীর সায়েদাবাদের ধলপুল এলকার মেয়র হানিফ ফ্লাইওভার থেকে না নামতেই স্টার লাইন পরিবহনের এই বাসটিতে হামলা চালায় দুর্বত্তরা। এমন অতর্কিত হামলা হয়েছে যাত্রবাড়ি, শনির-আখড়াসহ পূর্বাঞ্চল থেকে ঢাকা-গামী বেশক’টি গণপরিবহনে। বিএনপি’র সমাবেশে যোগ দিতে আসা নেতা-কর্মীদের বাঁধার মুখে ফেলতে– এমন নানা কৌশল নিয়েছে সরকার– অভিযোগ অনেকের।

সকাল থেকেই দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল থেকে রাজধানীমুখী দূরপাল্লার কোনো বাস গাবতলী বাস টার্মিনালে আসতে দেয়া হয়নি বলেও অভিযোগ বিএনপি কর্মীদের। উত্তরাঞ্চল, ময়মনসিংহ ও সিলেট-চট্টগ্রাম থেকে ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে আসা দুরপাল্লা’র গণপরিবহনেও কড়াকড়ি ছিলো পুলিশের। ট্রাকে করে আসার চেষ্টা করলেও, পথে পথে বাঁধা দিয়েছে পুলিশ।

এদিকে, রাজধানীমূখী গণপরিবহণ চলাচল না থাকায়– ক্ষোভ প্রকাশ করেন সাধারণ মানুষ। দূর-দূরান্ত থেকে আসা অফিসগামী ও খেটে খাওয়া মানুষ পড়েন বেকায়দায়।

অন্যদিকে, রাজধানী’র বিভিন্ন এলাকার রাজপথ এবং অলি-গলিতে আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতা-কর্মীদের মহড়া দিতে দেখা গেছে।

শেয়ার করুন।