মৌলভীবাজারের পাঁচ উপজেলায় বন্যা পরিস্থিতির অবনতি

0

মৌলভীবাজারের পাঁচ উপজেলায় বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হয়েছে। যমুনা নদীর পানি বেড়ে– নতুন করে তলিয়ে গেছে, সিরাজগঞ্জের চর ও নিম্নাঞ্চল। আর ক্ক্সবাজারে পানিবন্দী হয়ে পড়েছে, প্রায় আট লাখ মানুষ।

কুশিয়ারা নদীর পানি বইছে, বিপদসীমার উপর দিয়ে। সেই সাথে, ঢলের পানি কাউয়াদীঘি হাওরে নামায়, মৌলভীবাজার সদর ও রাজনগর উপজেলার নতুন নতুন এলাকা তলিয়ে গেছে। তবে অপরিবর্তিত রয়েছে, হাকালুকি পাড়ের বড়লেখা, জুড়ি ও কুলাউড়ার বন্যা পরিস্থিতি। তবে বৃষ্টি থামলে, আগামী সপ্তা থেকে কমতে পারে পানি।

তবে বন্যা দুর্গতদের সরকারি সহায়তা অব্যাহত আছে বলে জানান, জেলা প্রশাসন ও জনপ্রতিনিধিরা। এদিকে যমুনা নদীর পানি সিরাজগঞ্জ পয়েন্টে বিপদসীমার কাছাকাছি ছোঁয়ায়, কাজিপুর বেলকুচি, চৌহালি, শাহজাদপুর এবং সদর উপজেলার ১৫টি ইউনিয়নের চর ও নিম্নাঞ্চল ডুবতে শুরু করেছে। পানি বাড়ার সাথে সাথে চৌহালী উপজেলার নির্মানাধীণ নদীতীর রক্ষা বাঁধেও দেখা দিয়েছে ভাঙ্গণ।

টানা পাঁচদিনের ভারি বৃষ্টি এবং উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে কক্সবাজারের বিভিন্ন এলাকায় বন্যা দেখা দিয়েছে। এসব এলাকায় পানিবন্দি হয়ে পড়েছে, আট লাখেরও বেশি মানুষ। চকরিয়া, পেকুয়া, ঈদগাঁও, রামু, উখিয়া, টেকনাফ ও কক্সবাজার সদরেও পানিবন্দি হয়ে পড়েছে অনেকে।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন

5 × five =

Test