মানুষ এখন বিকল্প হিসেবে বেছে নিচ্ছে রেলপথ

0

সড়ক পথে ভোগান্তি থেকে রক্ষা পেতে মানুষ এখন বিকল্প হিসেবে বেছে নিচ্ছে রেলপথ। এতে রেল যাত্রীর সংখ্যা বাড়লেও সেবার মান তেমন বাড়েনি। তবে যাত্রীদের এই চাপ সামলাতে দেশের ৬১ জেলাকে রেলওয়ে নেটওয়ার্কের আওতায় আনার কাজ করছে সরকার। এসএটিভিকে এমন কথাই জানিয়েছন রেলপথমন্ত্রী মো: মুজিবুল হক।

দেশের সবগুলো রুটেই বেশির ভাগ ট্রেন দ্বিগুণ যাত্রী নিয়ে চলাচল করছে। সড়কপথের বর্তমান ভোগান্তির কারনেই যাত্রীরা রেলপথেই এখন যাতায়াত করছেন। রেল কর্তৃপক্ষ বলছে, যেসব এলাকায় রেল সংযোগ আছে, আগে শুধু সেসব এলাকার মানুষ ট্রেনে ভ্রমণ করতেন। কিন্তু এখন, রেলপথ নেই, এমন এলাকার মানুষও দুরে গিয়ে হলেও ট্রেনে ভ্রমণ করছেন।

যাত্রী বেড়ে যাওয়ায় ইতিবাচক প্রভাব পড়েছে রেলওয়ের সর্বশেষ অর্থবছরে। আগের বছরের তুলনায় প্রতিষ্ঠানটি ২০১৬-১৭ অর্থবছরে যাত্রী পরিবহন বাবদ ১৮০ কোটি টাকা বেশি আয় করেছে। গেল আগস্টের বন্যার পর সারাদেশে সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থার বেহাল দশা প্রকট হয়ে উঠেছে। সড়ক-মহাসড়কগুলোয় ঘণ্টার পর ঘণ্টা যানজট এখন নিত্যদিনের ঘটনা।

এমন অবস্থায় ট্রেনে যাত্রীদের বাড়তি চাপ সামলাতে বেশ কিছু উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। রেলওয়ের ট্রাফিক বিভাগের তথ্যমতে, বর্তমানে দেশের বিভিন্ন রুটে দৈনিক ৩৫০টি ট্রেন চলাচল করছে। যার মধ্যে ৮৮টি আন্তঃনগর, ১২৬টি লোকাল মিক্স, ১৩২টি মেইল এক্সপ্রেস ও ডেমু এবং চারটি আন্তর্জাতিক ট্রেন। এসব ট্রেনের যাত্রী ধারণক্ষমতা দৈনিক আড়াই লাখ। সে হিসেবে বর্তমানে দৈনিক পাঁচ লাখ যাত্রী যাওয়া- আসা করছেন।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন