ভয়াবহ বন্যার কবলে পড়তে যাচ্ছে বাংলাদেশ

0

ভয়াবহ বন্যার কবলে পড়তে যাচ্ছে বাংলাদেশ। এমন আশঙ্কার কথা জানিয়ে ঢাকাকে জরুরি সতর্ক বার্তা দিয়েছে নয়াদিল্লি। অতি বৃষ্টির পানি তিব্বত ছেড়ে দেয়ায়, ভারতের অরুণাচল ও আসাম হয়ে বাংলাদেশের ব্রহ্মপুত্র নদ ফুলে-ফেঁপে তলিয়ে যেতে পারে উত্তর ও মধ্যাঞ্চল। তাই পরিস্থিতি মোকাবেলায় পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তাদের প্রতি সর্বোচ্চ সতর্কতা জারি করেছে পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়। এদিকে বিশেষজ্ঞদের আশঙ্কা, ভারতের তথ্য অনুযায়ী বন্যা হলে ভয়াবহ ক্ষতির মুখে পড়বে কৃষি ও মানুষ।

সম্প্রতি চীনের তিব্বতে বৃষ্টিপাত ৫০ বছরের রেকর্ড ছাড়িয়েছে। তাই, গেল রোববার বেইজিং সরকার নয়াদিল্লিকে সতর্ক করে জানিয়েছে, প্রবল বর্ষণে সাংপো নদী ফুলে ফেঁপে ওঠায় প্রতি সেকেন্ডে প্রায় ন’হাজার কুড়ি কিউমেক পানি ছাড়া হচ্ছে। এই স্রোত গড়াচ্ছে ভারতের অরুণাচল ও আসামের দিকে। যার গতি ব্রহ্মপুত্র দিয়ে বাংলাদেশের পথে। তাই, ঢাকাকেও জরুরি সতর্কবার্তা পাঠিয়েছে ভারত সরকার।

এদিকে, বৃহস্পতিবার নয়াদিল্লি থেকে এমন সতর্কতা জারির পরই নড়েচড়ে উঠেছে পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়। পানি উন্নয়ন বোর্ডের সব কার্যালয়ে জরুরি ফ্যাক্সবার্তা পাঠিয়ে কর্মকর্তাদের পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণে সর্বোচ্চ প্রস্তুত থাকারও নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

এরপরই ব্রহ্মপুত্র নদ ছাড়াও, পদ্মা এবং যমুনাসহ সংশ্লিষ্ট নদী তীরবর্তী এলাকাগুলোর বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ তদারকিতে মাঠে নেমেছেন কর্মকর্তারা।
এদিকে, উজানের ধেয়ে আসা ঢলে কুড়িগ্রাম, গাইবান্ধা, বগুড়া, সিরাজগঞ্জ ও রাজবাড়ী এলাকায় ফসলের ক্ষতি ও ভাঙন ভয়াবহ রুপ নিতে পারে-এমন আশঙ্কা বিশেষজ্ঞদের। তবে কোনো আতঙ্ক নয়; বরং পরিস্থিতি মোকাবেলায় সংশ্লিষ্টদের এখনই প্রস্তুত থাকার পরামর্শ দিয়েছে পানি উন্নয়ন বোর্ড।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন