বেসরকারি ব্যাংকের সুদ নিয়ন্ত্রণে সরকারের কোনো নিয়ন্ত্রণ নেই

0

বেসরকারি ব্যাংকের সুদের হার নিয়ন্ত্রণে– সরকারের কোনো নিয়ন্ত্রণ নেই বলে জানিয়েছেন, অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। সকালে প্রাক-বাজেট আলোচনায় তিনি আরো বলেন, এবারের বাজেটে পরিবহন ও জ্বালানি খাতে বেশি বরাদ্দ দেয়া হবে। বর্তমানে যথেষ্ট পরিমানে চিকিৎসক গ্রামে থাকেন বলেও দাবি করেন তিনি। অনুষ্ঠানে, সাবেক এক মন্ত্রী অভিযোগ করেন, বেসরকারি ব্যাংক মালিকরা অ্যাসোসিয়েশন করে ইচ্ছেমত সুদের হার বাড়ায়, যা উচিত নয়।

রাজধানীর শেরে-ই-বাংলা নগরে, এনইসি সম্মেলন কক্ষে বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের স্থায়ী কমিটির সদস্যদের সঙ্গে প্রাক-বাজেট আলোচনায় বসেন অর্থমন্ত্রী। এ সময় করের আওতা আরো বাড়ানোর ওপর গুরুত্ব দেন সাংসদরা। এছাড়া ৪০ থেকে ৪৫ ভাগ সর্বোচ্চ করের হার কমালে রাজস্ব আয় বাড়বে বলেও মত দেন সাংসদদের কেউ-কেউ।

বেসরকারি ব্যাংকগুলো লাগামহীনভাবে চলছে উল্লেখ করে এসব ব্যাংকের কর্মকতাদের বেতনসহ কিছু বিষয়ে সংস্কার আনা দরকার বলেও জানান সাবেক বন ও পরিবেশ মন্ত্রী।

অর্থমন্ত্রীও স্বীকার করেন বেসরকারী ব্যাংকের ওপর সরকারের নিয়ন্ত্রণ নেই।

এবারের বাজেটের আকার ও প্রাধান্য পাওয়া খাত সম্পর্কেও কথা বলেন অর্থমন্ত্রী।

গ্রামে চিকিৎসকরা থাকেন না সাংসদদের এমন বক্তব্যের বিরোধীতাও করেন তিনি।

বাংলাদেশের জন্য– জুলাই থেকে জুন পর্যন্ত অর্থবছরের সময়সীমা উপযুক্ত বলেও তার দাবি।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন