বৃষ্টি উপেক্ষা করেই, রাজধানী ছাড়তে শুরু করেছেন ঘরমুখো মানুষ

0

দিনভর বৃষ্টি উপেক্ষা করেই, রাজধানী ছাড়তে শুরু করেছেন ঘরমুখো মানুষ। তবে পথে পথে পোহাতে হচ্ছে নানা ভোগান্তি। শিডিউল বিপর্যয়ে উত্তরবঙ্গগামী ট্রেনের যাত্রীদের জন্য কষ্টের দিন ছিলো বৃহস্পতিবার। সকাল থেকে রংপুর, একতা, চিলাহাটি, সুন্দরবন এক্সপ্রেসের যাত্রীদের অপেক্ষা করতে হয়েছে কমপক্ষে ২ ঘন্টা করে। কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন ম্যানেজার বলেন, গাইবান্ধা ও রংপুরের কিছু অংশ ট্রেন লাইন ক্ষতিগ্রস্থ থাকায় এই অবস্থা। ঈদুল আজহার বিশেষ ৩টি ট্রেন চলাচল শুরু করেছে আজ থেকে।

২ ঘন্টা দেরিতে এসে চিলাহাটির এই ট্রেনটি প্লাটফর্মে যখন দাঁড়ালো রীতিমত হুড়োহুড়ি লেগে যায় । টিকিট করেও অনেক ঢুকতে পারছেন না। বৃদ্ধ নারী যুবক সবার চেষ্টা কাঙ্খিত সিটে বসা।

যারা ভেতরে ঢুকতে পেরেছেন গরম আর ভিড়ে তাদের নাভিশ্বাস।

ট্রেনে করে ঈদে স্বস্তির যাত্রার কথা চিন্তা করে যারা কমলাপুর এসেছিলেন। সে সব যাত্রীদের বেশিরভাগ চরম অস্বস্তি নিয়ে অপেক্ষা করতে থাকেন। ৮টার ট্রেন ১১টা আর ১০টার ট্রেন বারোটায় ছাড়ে।

কমলাপুর স্টেশন ম্যানেজার জানান, উত্তরাঞ্চলের বন্যার কারণে ট্রেন আসতে দেরি হচ্ছে।

কালোবাজারি ও ছাদে যাত্রী ওঠা ঠেকাতে বিশেষ ব্যবস্থা নিয়েছে রেবসহ আইনশৃঙ্খলাবাহিনীর সদস্যরা।

ঈদের ছুটিতে প্রিয়জনের সাথে কাটাতে এত দুর্ভাবনার মধ্যেও অজানা আনন্দ ছিলো যাত্রীদের চোখে মুখে।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন