বিশ্বের ৬৪ নম্বরে অবস্থান করছে চট্টগ্রাম বন্দর

0

লয়েড’স লিস্টের তালিকায় এক লাফে ৬ ধাপ এগিয়ে, এখন বিশ্বের ৬৪ নম্বরে অবস্থান করছে চট্টগ্রাম বন্দর। কন্টেইনার হ্যান্ডলিংয়ের সক্ষমতাকে প্রাধান্য দিয়ে এই তালিকা তৈরী করেছে প্রতিষ্ঠানটি। বন্দরের টার্মিনাল অপারেটরের দাবি, সীমিত সক্ষমতার পরিকল্পিত ব্যবহারেই মিলেছে সাফল্য। যা ইতিবাচক প্রভাব ফেলবে আমদানী রপ্তানী বাণিজ্যে। বন্দর ব্যবহারকারীরা বলছেন, কন্টেইনার হ্যান্ডলিংয়ের সক্ষমতা বাড়লেও, সেবার মান তেমন বাড়েনি।

লন্ডন ভিক্তিক শিপিং বিষয়ক প্রাচীনতম সংবাদ মাধ্যম লয়েড’স বিশ্বের শীর্ষ ১০০ বন্দরের তালিকা প্রকাশ করে প্রতিবছর। ২০০৮ সালে সর্বপ্রথম তালিকায় নাম ওঠে চট্টগ্রাম বন্দরের। কিন্তু তখন অবস্থান ছিল ৯৫ নম্বরে। এরপর থেকে প্রতিবছর ২/১ ধাপ করে এগোলেও, এবার এক লাফে ৬ ধাপ এগিয়েছে দেশের প্রধান সমুদ্র বন্দরটি।

শিপিং এজেন্ট এসোসিয়েশন বলছে, এই তালিকায় আন্তর্জাতিক বাজারে দেশের ভাবমুর্তি উজ্জল হবে ঠিক, কিন্তু এতে তৃপ্তির ঢেকুর তুলে বসে থাকলে চলবে না। তালিকায় আরো এগুতে নিতে হবে পরিকল্পিত উদ্যোগ।

লয়েড’স লিস্টের প্রতিবেদনে শুধু কন্টেইনার হ্যান্ডলিংয়ের সক্ষমতাকে প্রধান্য দিয়েছে। অন্য সব সেবা খাত বিচার করলে, সন্তুষ্টির জায়গাটি সংকুচিত হতো বলে মনে করে বিজিএমইএ।

গেল বছর ৪ কোটি ২০ লাখ কন্টেইনার হ্যান্ডলিং করে লয়েড’স লিস্টের শীর্ষে চীনের সাংহাই বন্দর। আর ২৯ লাখ কন্টেইনার হ্যান্ডলিং করে তালিকার ৬৪ নম্বরে চট্টগ্রাম বন্দর।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন