বিশ্বভারতীতে বাংলাদেশ ভবনের ফলক উন্মোচন করেন শেখ হাসিনা ও মোদী

0

বিশ্বভারতীতে বাংলাদেশ ভবনের ফলক উন্মোচন করেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। পরে দুই নেতার বৈঠক হওয়ারও কথা রয়েছে। বাংলাদেশ সরকারের অর্থায়নে নির্মিত এই ভবনে রয়েছে ৪৫০ আসনের প্রেক্ষাগৃহ, যা বিশ্বভারতীতে থাকা প্রেক্ষাগৃহগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বড়।

বাংলাদেশের সাংস্কৃতিক ইতিহাসভিত্তিক সংগ্রহশালার পাশাপাশি ভবনটিতে বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ক এবং বাংলাদেশের বিভিন্ন বিষয়ের গ্রন্থের সংগ্রহ নিয়ে একটি পাঠাগারও তৈরি করা হয়েছে।ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর আমন্ত্রণে বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তন অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ অনুষ্ঠানে আচার্য্যের ভাষণে নরেন্দ্র মোদি বলেন- ভারত ও বাংলাদেশ দুটি আলাদা রাষ্ট্র হলেও সংস্কৃতিসহ নানা বিষয়ে এ দুই দেশের অভিন্নতা ও অটুট বন্ধন রয়েছে। শুক্রবার সকাল ১০টায় শান্তিনিকেতনে পৌঁছালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অভ্যর্থনা জানান বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য সবুজ কলি সেন। এরপর শান্তিনিকেতনের রবীন্দ্র ভবনে তাকে স্বাগত জানান নরেন্দ্র মোদী। পরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিশ্বভারতীর সমাবর্তন অনুষ্ঠানে যোগ দেন। সাথে যোগ দেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও পশ্চিম বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। এ সমাবর্তনে নরেন্দ্র মোদী আরো বলেন- বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার যোগদানে বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের এ সমাবর্তন অনুষ্ঠান পরিপূর্ণ হয়েছে। বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের প্রতিষ্ঠিত বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের ৪৯তম এই সমাবর্তন অনুষ্ঠানে শেখ হাসিনা যোগ দিলেন ‘গেস্ট অব অনার’ হিসেবে।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন