বিপিএলে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে উঠে এলো ঢাকা ডায়নামাইটস

0

খুলনা টাইটান্সকে ৪ উইকেটে হারিয়ে– বিপিএলে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে উঠে এলো ঢাকা ডায়নামাইটস। খুলনায় ৫ উইকেটে, ১৫৬ রানের জবাবে কায়রন পোলার্ডের ঝড়ো ব্যাটিংয়ে– এক বল হাতে রেখেই জয় পায়, গতবারের চ্যাম্পিয়নরা।

টানা তৃতীয় জয়ের লক্ষ্যে মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে টস জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন ডায়নামাইটসের অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। পেসার মোহাম্মদ শহীদকে বসিয়ে ব্যাটসম্যান নাদিফ চৌধুরীকে যুক্ত করে ব্যাটিং শক্তি বাড়ায় ঢাকা। অন্যদিকে একাদশে দু’টি পরিবর্তন আনে খুলনা। আকিলা ধনাঞ্জয়া ও ধীমান ঘোষের কাছে জায়গা হারান চাদউইক ওয়াল্টন ও মোশাররফ হোসেন।

ব্যাটিংয়ে নেমে ঢাকার নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে খুব একটা স্বস্তি পায়নি খুলনা। ওপেনার নাজমুল হোসেন শান্ত করেন ২৪ রান। মাইকেল ক্লিনগার ১০ রান করে সাজঘরে ফেরেন। তিন নম্বরে নেমে ধীমান ঘোষ করেন মাত্র ২ রান। অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ’র ১৪ রানের আউটে চাপে পড়ে রূপসা পাড়ের দলটি

এরপর দলের হাল ধরেন রিলে রুশো এবং কার্লোস ব্র্যাথওয়েট। ৩৩ বলে ৫৪ রান তুলে এই জুটি। ৩০ বলে ৩৪ রানে রুশো আউট হলেও হাফ-সেঞ্চুরি তুলে নেন ব্র্যাথওয়েট। ৪টি চার আর ৬টি ছক্কায় ২৯ বলে ৬৪ রান করে অপরাজিত থাকেন এই ক্যারিবীয় ব্যাটসম্যান। ঢাকার আবু হায়দার রনি নেন দুই উইকেট।

১৫৭ রানের টার্গেটে ব্যাটিংয়ে নেমে ঢাকার শুরুটা মোটেই ভালো হয়নি। দলীয় ৪১ রানে বিদায় নেন টপঅর্ডারের পাঁচ ব্যাটসম্যান। যেখানে- এভিন লুইস, সুনীল নারাইন, শহীদ আফ্রিদি, ক্যামেরন ডেলপোর্ট আর সাকিব আল হাসান’রা ব্যাটিংয়ে ব্যর্থ, সেখান থেকেই ঢাকার ইনিংসে শুরু অন্য গল্প।

ষষ্ঠ উইকেট জুটিতে জহুরুল ইসলাম’কে সাথে নিয়ে লড়াই চালিয়ে যান ক্যারিবিয় ব্যাটিং দানব কায়রান পোলার্ড। যোগ করেন ৩৭ বলে ৭৩ রান। আর তাতেই জয় ঢাকার।

পোলার্ড বিদায় নেওয়ার আগে মিরপুরে ঝড় তোলেন। ২৪ বলে তিনটি চার এবং ছয় ছক্কায় করেন ৫৫ রান। আর, ৪৫ রান করে অপরাজিত থাকেন জহুরুল ইসলাম। জমজমাট এক ম্যাচ দেখে ক্রিকেট ভক্তরা।

শেয়ার করুন।