বিএনপি চেয়ারপার্সনকে বিভিন্ন মামলায় গ্রেফতার দেখানোর অপচেষ্টায় লিপ্ত সরকার

0

খালেদা জিয়ার আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেন অভিযোগ করেন, দীর্ঘদিন কারাগারে রাখতেই বিএনপি চেয়ারপার্সনকে বিভিন্ন মামলায় গ্রেফতার দেখানোর অপচেষ্টায় লিপ্ত সরকার। আর সাবেক প্রধানমন্ত্রীর কারাবরণ এই সরকার পতনের প্রথম ধাপ বলে মনে করেন, দলটির ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন। অন্যদিকে, সাবেক আইনমন্ত্রী এবং অ্যাটর্নি জেনারেলের মতে, আদালতে হাজির না হয়েও আইনজীবীর মাধ্যমে জামিন আবেদন করতে পারবেন বিএনপি চেয়ারপার্সন।

বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া। জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় ৫ বছরের সাজা নিয়ে এখন রয়েছেন কারাগারে। তার আইনজীবীদের দেয়া তথ্য, তিনবারের সাবেক এই প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে চলমান রয়েছে ৩৫টি মামলা। যার মাধ্যে দুর্নীতির ৫টি, রাষ্ট্রদ্রোহের ১০টি এবং চাঁদাবাজির ১১টি। বাকিগুলো মানহানির মামলা। সবশেষ কারাগারে থাকা অবস্থায় সোমবার তার বিরুদ্ধে কুমিল্লায় নাশকতার অভিযোগে দায়ের করা মামলায় গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করে বিচারিক আদালত।

এমন বাস্তবতায় দায়ের করা মামলা নিয়ে বিএনপি চেয়ারপার্সনের দীর্ঘ কারাবাসের শঙ্কার কথা তুলে ধরেন তাঁর আইনজীবী। একই সূর অ্যাটর্নির জেনারেলের কণ্ঠে। তবে কুমিল্লার মামলায় জামিনের বিষয়ে ভিন্নমত এই আইনজীবীদের। এদিন সুপ্রিমকোর্ট চত্বরে আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশে খালেদা জিয়ার কারাবরণকে সরকার পতনের প্রথম ধাপ বলে হুশিয়ারি দেন বিএনপি সমর্থক আইনজীবীরা।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন