ফরিদপুরে এ বছর আমনের বাম্পার ফলন

0

ফরিদপুরে এ বছর আমনের বাম্পার ফলন হয়েছে। তবে উৎপাদন খরচের তুলনায় দাম কম হওয়ায় হতাশ ধান চাষীরা। এদিকে, কুষ্টিয়ায় সরকারিভাবে ধান ক্রয় শুরু হলেও উৎপাদন খরচের চেয়ে কম দামে বিক্রি করতে হচ্ছে কৃষকদের। তাই ন্যায্য দাম পেতে খোলাবাজারে ধান ক্রয়ের দাবি তাদের।

ফরিদপুর কৃষি বিভাগের হিসেবে, এ বছর ৭০ হাজার ৫২৫ হেক্টর জমিতে আমন ধানের আবাদ হয়েছে।উচ্চ ফলনশীল হাইব্রিড,ব্রী ধান-৪৯, ৫৬, ৫৭,৭৫ এবং বীনা-৭ ও ১৭ ধানের আবাদ বেশী হয়েছে।তবে উৎপাদন খরচের তুলনায় দাম না পাওয়ায় হতাশ কৃষকরা। এদিকে, ধানের ন্যায্য দাম পেতে চাষীদের মাঠ পর্যায়ে পরামর্শ ও সহযোগিতা দেয়া হচ্ছে বলে জানান জেলার কৃষি কর্মকর্তা ।

কুষ্টিয়ার ৬টি উপজেলা ও ৫টি পৌরসভায় চাষীদের কাছ থেকে সরাসরি ১ হাজার ৪০ মন ধান কিনতে সব উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, কৃষি অফিসার ও উপজেলা খাদ্য কর্মকর্তার সমন্বয়ে একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। ইউনিয়ন ও ওয়ার্ডে লটারীর মাধ্যমে কৃষক নির্বাচন কার্যক্রম শেষে ধান কেনা হচ্ছে।

কুষ্টিয়া সদর উপলোর ১৬ হাজার কৃষকের মধ্যে লটারীতে সুযোগ পেয়েছেন মাত্র ২ হাজার ৫শ ৭৫ জন।বাকিদের ৫ থেকে ৬শ টাকা মন ধান বিক্রি করতে হচ্ছে। কোন মধ্যস্বত্বভোগী যাতে সুযোগ না নিতে পারে এবং দুর্নীতি মুক্ত করতে লটারীর মাধ্যমে কৃষক নির্বাচন করা হয়েছে জানান জেলা কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগ। এদিকে,এ প্রক্রিয়া অব্যাহত থাকবে জানান কুষ্টিয়া জেলা প্রশাসক।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন