ফরিদপুরে একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভুল চিকিৎসায় প্রসুতির মৃত্যু

0

ফরিদপুরের ভাংগায় একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভুল চিকিৎসায় প্রসুতির মৃত্যু হয়েছে। ফেরদৌসি বেগম নামের ওই প্রসুতির শরীরে দুষিত রক্ত দেয়ায়– করুণ মৃত্যু হয় বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় এলাকায় তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে। ভুল চিকিৎসার কারণেই– অকালে প্রাণ দিতে হয়েছে তাকে, অভিযোগ স্বজনদের।

প্রসব বেদনা নিয়ে গত বৃহস্পতিবার ভাংগা উপজেলার ঘারুয়া ইউনিয়নের তুলি প্রাইভেট হাসপাতালে ভর্তি হয় ফেরদৌসি বেগম। অস্ত্রপচারের পর হাসপাতাল কর্তৃপক্ষই ফেরদৌসির শরীরে দূষিত রক্ত দেয় বলে অভিযোগ স্বজনদের। একারণেই আধাঘণ্টার মধ্যে ফেরদৌসির শরীর নীল হয়ে যায়। পরে অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় প্রথমে তাকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এবং পরে ঢাকায় পাঠানো হয়।

এ ঘটনায় দায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি স্বজনদের। অন্যদিকে, প্রতিটি হাসপাতালে একজন গাইনী চিকিৎসক থাকা উচিৎ বলে মনে করেন ইউপি চেয়ারম্যান।

এদিকে, স্বজনদের দেয়া রক্তের কারণেই রোগীর শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়েছে, দাবি করে অভিযোগ মানতে নারাজ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। কিন্তু পরে অস্ত্রপচারকারী ফুয়াদ হোসেনকে আর হাসপাতালে দেখা যায়নি। এ ঘটনায় ৪ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। ভুল চিকিৎসায় রোগীর মৃত্যু ঠেকাতে হাসপাতাল ও ক্লিনিকের ওপর কর্তৃপক্ষের নজরদারি বাড়ানোর দাবি স্থানীয়দের।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন