প্রবাসীদের পাঠানো বিপুল অর্থ চলে যাচ্ছে অনুৎপাদনশীল খাতে

0

প্রবাসী বাংলাদেশীরা বছরে প্রায় ১৬ বিলিয়ন ডলার রেমিটেন্স পাঠালেও সেই টাকা উৎপাদনমুখী কাজে বিনিয়োগ হতে পারছে না। অভিবাসন বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এতো বিপুল অর্থ প্রবাসীরা পাঠালেও তাদের ব্যাপারে বাজেটে কোন প্রণোদনা ও কার্যকর পরিকল্পনা না থাকায় এই টাকা অনুৎপাদনশীল খাতে ভোগ-বিলাসেই চলে যাচ্ছে।

গতবছর বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে ১ হাজার ৫৫৪ কোটি ডলার পাঠিয়েছেন প্রবাসী বাংলাদেশীরা। ব্যাংকিং চ্যানেলে দেশে পাঠানো এই রেমিটেন্সের পরিমাণ বাংলাদেশি মুদ্রায় এক লাখ ৩০ হাজার কোটি টাকারও বেশি। এতো বিপুল অর্থ প্রবাসীরা দেশে পাঠালেও সেই টাকা জমি কেনা, বাড়ি তৈরী, ইলেকট্রনিক্স পণ্য ও পারিবারিক কেনাকাটায় শেষ করেন প্রবাসীদের স্বজনরা। বৈদেশিক রিক্রুটিং এজেন্সীদের সমিতি- বায়রা বলছে, অর্থনীতিতে প্রবাসীদের অবদান রপ্তানি খাতের চেয়ে বেশি হলেও সেই অর্থে তাদের কোন সুযোগ-সুবিধা দেয়া হয় না।

রপ্তানিতে প্রণোদনার মতো রেমিটেন্সের বিনিয়োগেও বেশকিছু সুযোগ দিয়ে বাজেটে প্রবাসীদের জন্য বরাদ্দ রাখলে রেমিটেন্স দ্বিগুণ করা সম্ভব বলে মনে করেন জনশক্তি বিশেষজ্ঞ হাসান আহমেদ চৌধুরী কিরণ।

বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নরের মতে ছোট ছোট প্রকল্পে রেমিটেন্স বিনিয়োগের সুযোগ দিলে প্রবাসীদের রেমিটেন্সের বড় অংশ যাবে উৎপাদনশীল খাতে।

তার মতে প্রবাসীরা তাদের বিনিয়োগকে ঝুকিহীন দেখতে চায়, তাই এই ব্যবস্থা সরকারকেই করতে হবে।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন