নুসরাত হত্যার ঘটনায় সাবেক ওসি মোয়াজ্জেম কারাগারে

0

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় গ্রেপ্তার ফেনীর সোনাগাজী থানার সাবেক ওসি মোয়াজ্জেম হোসেনের জামিন আবেদন নাকচ করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছে আদালত। দুপুরে সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক মোহাম্মদ আস্ সামস জগলুল হোসেন এই আদেশ দেন। এর আগে বেলা ২ টা ২০ মিনিটে ওসি মোয়াজ্জেমকে ট্রাইব্যুনালে হাজির করা হয়। শুনানির শুরুতে মামলার বাদী সুপ্রিমকোর্টের আইনজীবী সৈয়দ সাইয়েদুল হক আদালতকে বলেন, ওসি মোয়াজ্জেম আইনের সেবক হয়েও আইনের প্রতি শ্রদ্ধা দেখাননি। তবে আসামীর আইনজীবী বলেন, ওসি আইনের প্রতি শ্রদ্ধা দেখানোর চেষ্টা করেছেন।

রাজধানীর শাহবাগ থানা থেকে হস্তান্তরের পর ফেনীর সোনাগাজী থানার পুলিশ ওসি মোয়াজ্জেমকে ঢাকার সিএমএম আদালতে নিয়ে যায়। বেলা ২ টা ২০ মিনিটের দিকে তাকে ঢাকার সাইবার ট্রাইব্যুনালে হাজির করা হয়। এ সময় বিপুল সংখ্যক পুলিশ সদস্য কড়া পাহারায় সাবেক ওসি মোয়াজ্জেমকে আদালতে তোলে।

ট্রাইব্যুনালে মোয়াজ্জেমের পক্ষে আইনজীবী ফারুক আহম্মেদ এবং রাষ্ট্রপক্ষে সৈয়দ সাইয়েদুল হক ও নজরুল ইসলাম শামীম বক্তব্য উপস্থাপন করেন। ট্রাইব্যুনালে মোয়াজ্জেমের জামিন আবেদন করেন তার আইনজীবী। এসময় রাষ্ট্রপক্ষের সৈয়দ সাইয়েদুল হক বলেন, ওসি মোয়াজ্জেমের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির পর তিনি সরাসরি আদালতে হাজির হতে পারতেন। কিন্তু আইনের লোক হয়েও তিনি সেটি না করে পালিয়েছিলেন। উভয় পক্ষের শুনানী শেষে ওসি মোয়াজ্জেমের জামিন আবেদন নাকচ করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেয় ট্রাইব্যুনাল।

আসামীপক্ষের আইনজীবী বলেন, ওসি মোয়াজ্জেম আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। আইনের আশ্রয় নেয়ার জন্য তাঁর মক্কেল হাইকোর্টে গিয়েছিলেন। কিন্তু তাকে সেই সুযোগ না দিয়ে পুলিশ গ্রেপ্তার করে নিয়ে এসেছে।

এই মামলার অভিযোগ গঠনের শুনানির জন্য আগামী ৩০ জুন পরবর্তী দিন নির্ধারণ করে ট্রাইব্যুনাল।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন