নির্বাচনকে সামনে রেখে চট্টগ্রাম বন্দরে অমদানি-রপ্তানিতে ভাটা

0

নির্বাচনকে সামনে রেখে অমদানী রপ্তানী বাণিজ্যে ভাটা পড়েছে চট্টগ্রামে। বিগত বছরগুলোর অভিজ্ঞতায় রাজপথ উত্তপ্ত হওয়ার আশংকায় আমদানী রপ্তানী কমিয়ে দিয়েছেন ব্যবসায়ীরা। বিনিয়োগেও নেমে এসেছে স্থবিরতা। চট্টগ্রাম বন্দরে পণ্যভর্তি কন্টেইনারের পরিমান নেমে এসেছে অর্ধেকে। ব্যবসায়ী নেতারা বলছেন, নির্বাচনকে কেন্দ্র করে পরিস্থিতি অস্থিতিশীল হওয়ার যে আশংকা ছিলো তা অনেকটাই কেটে গেছে। তাই আবারো ব্যাবসা বাণিজ্য স্বাভাবিক হতে শুরু করেছে।

নির্বাচনের বছর রাজনৈতিক সহিংসতার আশঙ্কা থাকলেও এবার পরিস্থিতি ভিন্ন। একাদশ সংসদ নির্বাচনের আর মাত্র একমাসের মতো বাকি থাকলেও এখন পর্যন্ত শান্তিপূর্ণ পরিবেশেই চলছে নির্বাচনী তৎপরতা। এ অবস্থাকে দেশের অর্থনীতিতে ইতিবাচক হিসেবে দেখছেন বিজিএমইএর এই নেতা।

দেশ স্থিতিশীল থাকলেও ব্যবসা বাণিজ্যে লেগেছে ভাটার টান। ৪৯ হাজার কনটেইনার ধারণ ক্ষমতাসম্পন্ন চট্টগ্রাম বন্দরে স্বাভাবিক সময় কন্টেইনার থাকে অন্তত ৬০ হাজার। মৌসুমের কখনো কখনো তা ছাড়িয়ে যায় ৭০ হাজারেরও বেশী। আর বহি:নোঙ্গরে লোড-আনলোডের অপেক্ষায় থাকে অন্তত ৭০ টি জাহাজ। কিন্তু গতকাল বহি:নোঙ্গরে জাহাজ ছিলো ৪০ টিরও কম আর বন্দরের ভেতরে আছে মাত্র ৩৪ হাজার কন্টেইনার। ছোট্ট এই পরিসংখ্যানই বলছে আমদানী রপ্তানী কমেছে কতটা।

চট্টগ্রাম চেম্বারের সভাপতি বললেন, নির্বাচনের বছরে প্রতিকুল পরিস্থিতি মোকাবেলা করতে হয় ব্যবসায়ীদের। সেই তিক্ত অভিজ্ঞতা থেকেই এই অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। তবে রাজনৈতিক অবস্থা স্থীতিশীল থাকায় আশায় বুক বাধছেন ব্যবসায়ীরা।

ব্যবসায়ী নেতাদের মতে ব্যবসা-বাণিজ্যকে জিম্মি করে রাজনীতির চর্চা করার যে সংস্কৃতি এতদিন চালু ছিলো তা থেকে বেরিয়ে আসার সময় হয়েছে।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন