নারীদের অর্থনৈতিক স্বাধীনতা অর্জন করতে হবে

0

নারীদের বসে থাকলে চলবে না, জ্ঞান অর্জনের মধ্য দিয়ে ‘অর্থনৈতিক স্বাধীনতা’ অর্জন করতে হবে। এমন মন্তব্য করেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সমাজে নারীরা পিছিয়ে থাকলে– সমাজ মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে পারে না বলেও মনে করেন তিনি। পরিবারের প্রতি দায়িত্ব পালনে– নারী বড় ভুমিকা রাখে বলেও জানান প্রধানমন্ত্রী। এবছর পাঁচ নারীর হাতে জয়ীতা সন্মাননা তুলে দেন শেখ হাসিনা।

সমাজ-সভ্যতার অগ্রযাত্রায় পুরুষের সাথে সমান তালে কাজ করে যাচ্ছে নারী। বর্তমান বিশ্বে ৬৫ ভাগ নারী বিভিন্ন কাজের সাথে জড়িত থাকলেও আয় করে থাকেন মাত্র ১০ ভাগ। সেইসাথে নানা নির্যাতন আর অবহেলার শিকার হতে হচ্ছে তাদের। তাই মর্যাদা রক্ষায় আবহমান কাল থেকেই সংগ্রাম করে যাচ্ছেন নারীরা। এরই সম্মানস্বরূপ পালিত হয় আন্তর্জাতিক নারী দিবস।

সময় এখন নারীর : উন্নয়নে তাঁরা বদলে যাচ্ছে গ্রাম-শহরে কর্ম জীবনধারা’ শিরোনামে এবারের নারী দিবস পালিত হচ্ছে। সমাজে নারী অধিকার আদায়ে বিশেষ ভুমিকা রাখায় বিভিন্ন পেশার পাঁচ নারীকে জয়ীতা সন্মাননা তুলে দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

মুক্তি সংগ্রাম আর নারী অধিকারে বেগম ফজিলাতুন নেছা মুজিবের অবদানের কথাও স্মরণ করেন কন্যা শেখ হাসিনা।

নারীদের অধিকার আদায়ে বর্তমান সরকারের অবদানের কথা তুলে ধরে সরকার প্রধান — ভবিষ্যতের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় নারীদের প্রতি আহ্বান জানান।

সমাজের উন্নয়নে নারী– পুরুষ, এক সাথে কাজ করার তাগিদ দেন শেখ হাসিনা। পাশাপশি অভিভাকদের প্রতি আহ্বান জানান– মেয়েদের শিক্ষিত করে গড়ে তোলার।

পরে সমাজে নারীর প্রতি অবহেলা সহিঙসতা আর সমাজগঠনে নারীর অদকন নিয়ে গীতি নাট্য উপভোগ করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন