নানা সমস্যায় জর্জরিত হয়ে পড়েছে কুমিল্লার সরকারি প্রধান খাদ্য সংরক্ষণাগার ধর্মপুর খাদ্য গুদাম

0

নানা সমস্যায় জর্জরিত হয়ে পড়েছে কুমিল্লার সরকারি প্রধান খাদ্য সংরক্ষণাগার ধর্মপুর খাদ্য গুদাম। অথচ এখান থেকেই জেলার সেনাবাহিনী, পুলিশ, বিজিবি, রেল পুলিশ, আনসার ও ক্যাডেট কলেজের রেশন সরবরাহ করা হয়। জলবদ্ধতার কারণে গুদামের ভেতর ও বাইরের স্যাঁত স্যাঁতে পরিবেশ হওয়ায় খাদ্য সংরক্ষণের নেই সুষ্ঠু পরিবেশ। গুদাম এলাকার সড়ক ভাঙাচুরা ও গর্ত সৃষ্টি হওয়ায় খাদ্য পরিবহনেও বিঘ্ন সৃষ্টি হচ্ছে। দীর্ঘদিন অচল অবস্থার পরও সংস্কারে নেই কোনো উদ্যোগ।

কুমিল্লা শহুরের ধর্মপুর এলাকায় ১৯৬০ প্রায় ৮ একর জমির উপর নির্মিত হয় ১০টি খাদ্য গুদাম। পরবর্তীতে খাদ্য সংরক্ষণের আওতা বাড়াতে নির্মিত হয় আরও ৪টি গুদাম।সবমিলে ১৪টি গুদামের ধারণ ক্ষমতা ছিল ১০ হাজার ৫’শ মেট্রিক টন। বর্তমানে মাত্র ৪টি গুদামে ধান চাল সংরক্ষনের উপযোগি হিসেবে ব্যবহৃত হচ্ছে। সামান্য বৃষ্টিতে তলিয়ে যায় গুদাম এলাকার রাস্তাগুলো। জলাবদ্ধতার কারণে গুদাম, অফিস ভবন, কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের বাস ভবন ব্যবহারের অনুপযোগী হয়ে আছে।

খাদ্য গুদামের সংরক্ষণ ও চলাচল কর্মকর্তা জানান, জলাবদ্ধতার কারণে সৃষ্ট সমস্যার কারণে খাদ্য সংরক্ষণে ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে। সমস্যাগুলো উর্ধতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। জলাবদ্ধতার কারণে জমাট বাধা দুষিত পানি দিয়ে মালামাল উঠানামা করতে গিয়ে চর্মরোগে আক্রান্ত হচ্ছেন শ্রমিকরা। গুদাম এলাকার চারপাশে নিরাপত্তা দেয়াল নিচু হওয়ায় রাতে মাদক সেবিদের আনাগোনায় বিঘ্নিত হচ্ছে গুদাম এলাকার নিরাপত্তা।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন