দুর্নীতি এবং অনিয়মের কারণে দেশের ব্যাংকিং খাতে রক্তক্ষরণ হচ্ছে

0

দুর্নীতি এবং অনিয়মের কারণে– দেশের ব্যাংকিং খাতে রক্তক্ষরণ হচ্ছে, অথচ পরিস্থিতি উত্তরণে প্রস্তাবিত বাজেটে কোন দিক-নির্দেশনা নেই, যা দেশের অর্থনীতির জন্য ‘বড় অশনি সংকেত’। এমন পর্যবেক্ষণ ও শঙ্কা জানিয়েছেন অর্থনীতিবিদরা। দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে এক আলোচনায়, তাঁরা এসব আশঙ্কা জানান। জনগণের করের টাকায় লাভজনক ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠানগুলোকে কেন ভূর্তকি দেয়া হবে– সেই প্রশ্নও তোলেন অর্থনীতিবিদরা।

গত ৭ জুন, জাতীয় সংসদে আগামী অর্থবছরের জন্য ৪ লাখ ৬৫ হাজার কোটি টাকার বাজেট পেশ করেন অর্থমন্ত্রী। যেখানে ব্যাংকি খাতে ঘটে যাওয়া লুটপাট এবং অনিয়মের বিষয়ে কঠোর পদক্ষেপ নেয়ার কথা না বলে, উল্টো ব্যাংক-বীমা খাতে আড়াই শতাংশ কর্পোরেট ট্যাক্স কমানোর প্রস্তাব করেছেন আবুল মাল আব্দুল মুহিত।

এমন বাস্তবতায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সেন্টার অন বাজেট এণ্ড পলিসির এই আলোচনা সভা। এসময় আর্থিক খাতের অনিয়ম দূর করার বিষয়ে বাজেটে কোন দিক-নির্দেশনা না থাকায়, কড়া সমালোচনা করেন অর্থনীতিবিদরা। শিক্ষাখাতে কম বরাদ্দের সমালোচনার পাশাপাশি বক্তারা বলেন, মধ্যম এবং উন্নত রাষ্ট্রের স্বপ্ন বাস্তবায়নে এখাতে পর্যাপ্ত বিনিয়োগ প্রয়োজন।প্রস্তাবিত বাজেট নিয়ে অর্থনীতিবিদদের বিভিন্ন মূল্যায়ন– বিবেচনায় নিতে সরকারের প্রতি আহ্বানও জানান অর্থনীতিবিদরা।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন