দু’টি যুদ্ধ বিমান বিধ্বস্তের ঘটনায় উচ্চ পর্যায়ের তদন্ত কমিটি গঠন

0

কক্সবাজারের মহেশখালীতে বিমান বাহিনীর দু’টি যুদ্ধ বিমান বিধ্বস্তের ঘটনায় উচ্চ পর্যায়ের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ছ’টার দিকে মহেশখালীর পুটিবিলার পালপাড়া এবং ছোট মহেশখালীর মাইজপাড়া এলাকায় এই দূর্ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় গুরুতর আহত হয়েছে বিমানের এক পাইলট। অন্যদিকে দুই ক্রু সহ অপর এক পাইলটকে উদ্ধার করেছে দমকল বাহিনী। পরে তাদেরকে বিমান বাহিনীর বিশেষ হেলিকপ্টারে করে সিএমএইচে নিয়ে যাওয়া হয়।

বঙ্গোপসাগরের উপর দিয়ে নৈশ মহড়া চলছিলো। এসময় দ্বীপের আকাশে হঠাৎ করেই বিকট শব্দ এবং আগুন দেখতে পান স্থানীয়রা। ততক্ষনে বিধ্বস্ত হয়ে মাটিতে পড়ে যায় বিমান বাহিনীর দু’টি যুদ্ধ বিমান।

সংঘর্ষে আগুন লেগে যায় বিমান দুটিতে। বিধ্বস্ত হয়ে পড়ে যায় প্রায় পাঁচ কিলোমিটার দূরত্বের দুই গ্রামে। এরমধ্যে পুটিবিলা এলাকার বিমানটি পড়ে একটি ঘরের ভেতর। এসময় ঘরটিও বিধ্বস্ত হয়ে যায়। আহত হয় শিশুসহ পাঁচ জন।

এদিকে বিমানে থাকা চার জনের মধ্যে তিন পাইলট ও ক্রুকে অক্ষত অবস্থায় উদ্ধার করা হলেও, রাজিব নামে এক পাইলটকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে দমকল বাহিনীর কর্মীরা। পরে তাকে বিমান বাহিনীর হেলিকপ্টারে করে হাসপাতালে নেওয়া হয়।

প্রথমে বিমান দুটি উদ্ধারে স্থানীয়রা এগিয়ে আসে। পরে যোগ দেয় ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা। দীর্ঘ চার ঘন্টা চেষ্টা চালানোর পর আগুন নিয়ন্ত্রনে আনেন তারা।

এক বছর আগেও মহেশখালীর কাছাকাছি কক্সবাজার বঙ্গোপসাগরের ঘোলার চর পয়েন্টে একটি কার্গো বিমান বিধ্বস্ত হয়। ওই ঘটনায় বিদেশি পাইলটসহ মারা গিয়েছিলো তিনজন।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন