তিস্তাসহ ভারতের সঙ্গে অভিন্ন নদীর পানি সমস্যা আলোচনার মাধ্যমে সমাধানের চেষ্টা করছে সরকার

0

তিস্তাসহ ভারতের সঙ্গে অভিন্ন নদীর পানি সমস্যা আলোচনার মাধ্যমে সমাধানের চেষ্টা করছে সরকার। জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বাঁধ নির্মাণ না করে– নদীর স্বাভাবিক গতি ধরে রাখার নির্দেশনাও দেন তিনি। যেখানে সেখানে ময়লা-আবর্জনা না ফেলার আহ্বান জানান সরকার প্রধান। সুপেয় পানি নিশ্চিত করতে উন্নয়নের নামে খাল-পুকুর জলাশয় ভরাট না করার আহ্বানও জানান শেখ হাসিনা। বিশ্ব পানি দিবস উপলক্ষে, রাজধানীতে আলোচনায় তিনি এসব কথা বলেন।

আর বিশুদ্ধ পানির আরেক নাম, জীবন। জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে, ভূ-পৃষ্ঠের তিনভাগ জলরাশি থাকলেও বিশ্বজুড়ে সেই পানির সংকট দিন দিন বাড়ছে। জাতিসংঘ বলছে, বিশ্বে বর্তমানে দু’শ কোটি মানুষ সুপেয় পানি থেকে বঞ্চিত। তাদের মতে, আগামী ৩০ বছরে বিশ্বের ৭৫ ভাগ মানুষ পানির জন্য হাহাকার করবে।

এই সুপেয় পানি নিশ্চিত করতে, গত ২২ মার্চ প্রতিবছর বিশ্বজুড়ে পালিত হয়, পানি দিবস। এ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে যোগ দেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। নদীমাতৃক বাংলায় পানি সংকট মেটাতে সরকারের উদ্যোগের কথা জানিয়ে– প্রকৃতিকে রক্ষায় সবাইকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী। পানির অপচয় রোধে জনসচেতনতা বাড়ানোর তাগিদ দিয়ে সরকার প্রধান, নদী রক্ষাসহ বিশুদ্ধ পানি সংরক্ষণের দিক নিদের্শনা দেন। পবিরেশ রক্ষায় প্রাকৃতিক চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় পারর্দশিতা অর্জনের ওপর জোর দেন তিনি। দেশকে এগিয়ে নিতে আগামী একশ’ বছরের পরিকল্পনা নিয়ে সরকার কাজ করছে বলেও জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন