তফসিল ঘোষণার আগেই খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তির দাবি

0

জাতীয় নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার আগেই খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তির দাবি জানিয়েছে বিএনপি। সকালে খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে, রমনা ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউট চত্বরে মানববন্ধনে এ দাবি জানান দলটির শীর্ষ নেতারা। তারা বলেন, বিএনপি চেয়ারপার্সনকে ছাড়া নিরপেক্ষ নির্বাচন সম্ভব নয়। এছাড়া নির্বাচনকালীন সরকার, নির্বাচন কমিশন পুনর্গঠন ও সেনা মোতায়েনের দাবিও জানান বিএনপি নেতারা। সারাদেশে নির্বিচারে নেতাকর্মীদের গ্রেফতার করা হচ্ছে বলেও এসময় অভিযোগ করেন বিএনপি নেতারা।

খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে রমনা ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউট চত্বরে অনশন কর্মসুচি আয়োজন করে বিএনপি। পুলিশের বেধে দেয়া সময়ের আগেই রাজধানীর বিভিন্নস্থান থেকে নেতাকর্মীরা এসে জড়ো হন ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউট চত্বরে।

দীর্ঘদিন পর বিএনপির কোন কর্মসুচিতে যোগ দেন বিশদলীয় জোটের শরীক জামায়াতসহ অন্যান্য রাজনৈতিক দল। খালেদা জিয়ার মুক্তি ও নির্বাচনকালিন সরকারের দাবিতে সব আন্দোলনে বিএনপির পাশে থাকার ঘোষণা দেন শরিক দলের নেতারা।

খালেদা জিয়ার চিকিৎসার ব্যবস্থা করতে মুক্তি না দিলে সরকার জনস্রোতে ভেসে যাবে বলে হুঁশিয়ারি দেন বিএনপি নেতারা। সরকারকে উদ্যেশ্য করে, খালেদা জিয়ার মুক্তিসহ কিছু শর্ত জুড়ে দেন তারা।

খালেদা জিয়াকে ছাড়া কোন নির্বাচন হবে না বলে জানান ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ। তফসিল ঘোষণার আগে বিএনপি নেত্রীর মুক্তির জোর দাবিও জানান তিনি।

খালেদা জিয়ার মুক্তি ছাড়া গণতন্ত্র মুক্তি পাবে না বলে দাবি করেন খন্দকার মোশাররফ।

পরে বিএনপি নেতাদের অনশন ভাঙান অধ্যাপক এমাজউদ্দিন আহমেদ। খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবি জানিয়ে সরকারের সমালোচনা করেন তিনি।

সারাদেশে নেতাকর্মীদের গণগ্রেফতার করা হচ্ছে উল্লেখ করে, তা বন্ধ করতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানান বিএনপি নেতারা। একইসঙ্গে তাদের দাবি না মানলে, জাতীয় ঐক্যের মাধ্যমে সরকারের পতন ঘটানো হবে বলেও হুঁশিয়ারি দেন বিএনপি নেতারা।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন