ছাদ বাগানে নীরব বিপ্লব ঘটেছে চট্টগ্রামে

0

ছাদ বাগানে নীরব বিপ্লব ঘটেছে চট্টগ্রামে। নগরীর অন্তত ৫ হাজার ছাদে এখন ফুল-ফল ও শাক-সবজি ফলাচ্ছেন শহুরে কৃষকেরা। শখের বসে বাড়ির ছাদে কিংবা বারান্দায় দু-একটি গাছ দিয়ে শুরু করলেও ফলন ভালো হওয়ায় এখন বাণিজ্যিক পরিকল্পনা নিয়ে এগোচ্ছেন অনেকেই। কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর বলছে, দুই বছরের মধ্যে চট্টগ্রামের এক লাখ ছাদে চাষাবাদের লক্ষ্য নিয়ে এগোচ্ছেন তারা। যা বাস্তবায়ন হলে নগরবাসীর নিরাপদ খাদ্যের চাহিদা অনেকটাই পূরণ হবে।

চট্টগ্রামের পাহাড়তলী এলাকার একটি ছাদের চিত্র এটি। ফুল, ফল, শাক, সবজি– কি নেই এখানে? পরিত্যক্ত প্লাস্টিকের পাত্র, কাটা ড্রাম কিংবা টবে করে প্রায় সব ধরনের ফল ও সবজি চাষ করছেন শহুরে সৌখিন কৃষকেরা। ফলনও হচ্ছে বেশ। তাই শখের বসে বাগান করলেও এখন বাণিজ্যিকভাবে চাষাবাদের দিকে ঝুঁকছেন অনেকেই।

কৃষি কর্মকর্তারা বলছেন, একটু পরিকল্পিতভাবে চাষাবাদ করলে পরিবারের চাহিদা মিটিয়ে বাজারে বিক্রিও সম্ভব ছাদে উৎপাদিত উদ্বৃত্ত পণ্য।

কৃষি বিভাগ বলছে, প্রতিবছর চট্টগ্রাম থেকে প্রায় ১৮ হাজার হেক্টর কৃষিজমি হারিয়ে যাচ্ছে। এই ঘাটতি পূরণে ছাদ বাগানের বিকল্প নেই।

চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ ও জেলা প্রশাসনের পরিসংখ্যান বলছে, মহানগরীসহ সারা জেলায় ছাদযুক্ত ভবন আছে ১০ লাখের কিছু বেশি। আর এ যাবৎ বাগান করা হয়েছে মাত্র ৫ হাজার ছাদে। বাকি লাখ লাখ ন্যাড়া ছাদকে দ্রুত সবুজায়নের আওতায় আনতে সরকারের প্রণোদনা দেয়া প্রয়োজন বলে মনে করেন সংশ্লিষ্টরা।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন