ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’ আঘাত হানার পর দেশের উপকূলীয় অঞ্চলে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে

0

ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’ আঘাত হানার পর খুলনা, পটুয়াখালী, সাতক্ষীরা, বরিশাল ও মাদারীপুরসহ দেশের উপকূলীয় অঞ্চলে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। এখন পর্যন্ত ৮ জন নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

খুলনার উপকূলীয় দাকোপ ও দীঘলিয়া উপজেলায় গাছচাপা পড়ে দু’জন নিহত হয়েছে। দক্ষিণ দাকোপের সুভাষ মণ্ডলের স্ত্রী প্রমীলা ঝড়ের সময় গাছ চাপা পড়ে নিহত হয়। এছাড়া, দীঘলিয়ার সেনহাটি গ্রামে গাছচাপা পড়ে আলমগীর হোসেন নামে আরেকজন নিহত হয়।

পটুয়াখালীতে ভারী বৃষ্টিপাত আর ঝড়ো হাওয়ার মাঝে সকালে মির্জাগঞ্জের রামপুরা গ্রামে ঘর ভেঙে চাপা পড়ে হামিদ ফকির নামে এক বৃদ্ধসহ দু’জন মারা গেছে।

ঘূর্ণিঝড় বুলবুল আঘার হানার পর সাতক্ষীরার উপকূলীয় উপজেলা শ্যামনগরের গাবুরা আশ্রয়কেন্দ্র ছেড়ে সকালে বাড়ি যাওয়ার সময় হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে আবুল কালাম নামে এক ব্যক্তি মারা যায়। কালাম গাবুরা ইউনিয়নের চকবারা গ্রামের মরহুম আজিজ সরদারের ছেলে।

ঘুর্ণিঝড়ের সময় ঘরের ওপর গাছ ভেঙ্গে পড়লে বরিশালে আশালতা নামে এক বৃদ্ধা নিহত হয়। দুপুরে উজিরপুর উপজেলায় দক্ষিণ মাদারশী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আশালতা ওই গ্রামের মৃত জিতেন্দ্রনাথ মজুমদারের স্ত্রী।

ঘূর্ণিঝড়ের সময় গাছচাপায় মাদারীপুরে সালেহা বেগম নামে এক গৃহবধুর মৃত্যু হয়েছে। এ সময় আহত হন সালেহার স্বামী আব্দুল আজিজ খাঁ। দুপুরে সদর উপজেলার উত্তর ঘটমাঝিতে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

এছাড়া গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ার বান্ধাবাড়ী গ্রামে গাছচাপা পড়ে সাকেন হাওলাদার নামে এক বৃদ্ধ নিহত হয়েছে।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন