গ্রেনেড হামলার রায় শুধু অভ্যন্তরীণ নয়; বৈশ্বিক রাজনীতির জন্যও দৃষ্টান্ত

0

সন্ত্রাসবাদ দমনে শুধু অভ্যন্তরীণ রাজনীতি নয়, বৈশ্বিক রাজনীতির জন্য এক উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে একুশে আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায়। এমন মন্তব্য করেছেন, দেশের অন্যতম সংবিধান প্রণেতা ব্যারিস্টার এম আমীর উল ইসলাম। অন্যদিকে, সংবিধান বিশেষজ্ঞ ড. শাহদীন মালিকের মতে, এই রায় লন্ডনে অবস্থানরত বিএনপি’র ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের রাজনৈতিক আশ্রয় লাভের সুযোগকে বাড়িয়ে দেবে। তবে দ্রুত এই রায়ের অনুমোদন ও আপিল শুনানির উদ্যোগ নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম।

বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনাকে হত্যার উদ্দেশ্যে ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট বর্বর গ্রেনেড হামলা চালায় দুর্বৃত্তরা। ওই দিন বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে আর্জেস গ্রেনেডের ত্রিমুখী হামলায় মারা যান ২৪ জন, দলীয় সভানেত্রীসহ আহত হন একশোরও বেশি নেতাকর্মী। বুধবার এই মামলার রায়ে আন্তর্জানিক জঙ্গি সংগঠনের সদস্য ও পাকিস্তানী নাগরিক মাজেদ ওরফে ইউসুফ ভাটের ২০ বছরের কারাদণ্ডের সাজায় স্পট হয়– ২১ আগস্টের গ্রেনেড হামলা ছিল- দেশের অভ্যন্তরীণ রাজনীতিতে আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবাদের অংশ।

বহুল আলোচিত এই মামলার রায় নিয়ে নিজেদের মূল্যায়ন তুলে ধরেন দেশের অন্যতম সংবিধান প্রণেতা ব্যারিস্টার এম আমীর-উল ইসলাম এবং সংবিধান বিশেষজ্ঞ ড. শাহদীন মালিক।

বিএনপি’র ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে দেয়া যাবজ্জীবন সাজা সম্পর্কে এই দুই আইন বিশেষজ্ঞ তুলে ধরেন ভিন্নমত।

এদিকে, বিচারিক আদালতের দণ্ড অনুমোদন এবং আপিল নিষ্পত্তিতে দ্রুত কার্যকর উদ্যোগ নেয়া হবে বলে জানান রাষ্ট্রের সর্বোচ্চ আইন কর্মকর্তা।

আইনজীবীরা আরো জানান, বিচারিক আদালতের দেয়া সাজার বিশ্লেষণ শেষে আপিল বিভাগেই নিশ্চিত হবে আসামীদের চূড়ান্ত দণ্ড।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন