গোপালগঞ্জে সাব-রেজিস্ট্রারের পদ শুন্য থাকায় চরম ভোগান্তিতে সাধারণ মানুষ

0

গোপালগঞ্জের সদর উপজেলায় সাব-রেজিস্ট্রারের পদটি শুন্য থাকায় জমির দলিল করতে চরম ভোগান্তিতে পড়েছে সাধারণ মানুষ। এতে একদিকে যেমন রাজস্ব হারাচ্ছে সরকার অন্যদিকে আয় রোজগার বন্ধ হয়ে পড়েছে দলিল লেখকদের। ভোগান্তি কমাতে দ্রুত সাব-রেজিস্ট্রার পদে নিয়োগ অথবা পদায়ন দেয়ার দাবী জানিয়েছেন সাধারণ মানুষ ও দলিল লেখকরা।

গোপালগঞ্জ সদর সাব-রেজিস্ট্রার অফিসে প্রতিদিনই দুই শতাধিক জমির রেজিষ্ট্রি করা হয়। সদর উপজেলাসহ বিভিন্ন স্থান থেকে এসে জমি রেজিস্ট্রি করতে হয় জমি ক্রেতা ও বিক্রেতাদের। কিন্তু গেলো ৩০ মে সাব-রেজিস্টার আব্দুর রহিম পদোন্নতি পেয়ে নড়াইল বদলি হয়ে গেলে এক মাস ধরে বন্ধ থাকে জমির রেজিষ্ট্রি। ফলে চরম ভোগান্তিতে পড়েছে সাধারণ মানুষ।

এদিকে, ভোগান্তির কথা চিন্তা করে মুকসুদপুর উপজেলা সাব রেজিষ্ট্রারকে অতিরিক্ত দায়িত্ব দেয়ায় তিনি সপ্তাহে মাত্র দুই দিন অফিসে করেন। যে কারনে বাকী তিন দিন কাজ বন্ধ থাকায় দলিল লেখকরা সকল কাজ বন্ধ রেখেছে। যে কারনে তাদেরও আয়-রোজগার প্রায় বন্ধ হয়ে গেছে, মানবেতর জীবন যাপন করছেন তারা।

সাধারণ মানুষের দুর্ভোগের কথা স্বীকার করে জেলা রেজিস্ট্রার জানান, এ বিষয়ে যথাযথ কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে।

সব দিক বিবেচনায় এই উপজেলায় দ্রুত সাব-রেজিষ্ট্রার নিয়োগ দেবে সরকার এমনটাই প্রত্যাশা সাধারণ মানুষ ও দলিল লেখকদের।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন