গাজীপুর সিটি নির্বাচনে ৫৭টি ওয়ার্ডের বেশিরভাগেই রয়েছে আওয়ামী লীগ সমর্থিত একাধিক প্রার্থী

0

গাজীপুর সিটি নির্বাচনে ৫৭টি ওয়ার্ডের বেশিরভাগেই রয়েছে আওয়ামী লীগ সমর্থিত একাধিক প্রার্থী। এর বিপরীতে– প্রায় প্রতিটি ওয়ার্ডেই একক প্রার্থী রয়েছে বিএনপি’র। সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন এবং ক্ষমতাসীনদের এই অনৈক্য– শেষ পর্যন্ত বহাল থাকলে এর সুফল অনেকটাই যাবে বিএনপি’র ঘরে। এমন মত, ভোটারদের একটি অংশের। তবে ওয়ার্ড কাউন্সিলর নির্বাচনে দলীয় পরিচয়ের উর্দ্ধে উঠে সাধারণ মানুষ যোগ্য প্রার্থীকে নির্বাচিত করবে বলে মনে করেন, অনেক ভোটার ও আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থীরা।

ব্যানার, পোস্টারে ছেঁয়ে গেছে গোটা নির্বাচনী এলাকা। চায়ের দোকান থেকে শুরু করে সবখানেই এখন আলোচনা সিটি নির্বাচন নিয়ে । শুক্রবার ছুটির দিন হওয়ায় কাউন্সিলর প্রার্থীদের অনেককেই সকালে প্রচারণায় দেখা যায়নি। গাজীপুর সিটিতে ৫৭টি ওয়ার্ডে ২৫৬ জন কাউন্সিলর এবং ৮৪ জন সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর এবার প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। মেয়রের মতো সরাসরি দলীয় পরিচয়ে না হলেও প্রার্থী দেয়ার ক্ষেত্রে এর প্রভাব থাকে এই নির্বাচনে। কিন্তু প্রায় প্রতিটি ওয়ার্ডেই সরকারিদলের একাধিক প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

তবে প্রায় প্রতিটি আসনেই একক প্রার্থী রয়েছে বিএনপি সমর্থিতদের। ফলে এদিক থেকে কিছুটা সুবিধাজনক অবস্থানে তারা। যদিও কিছু ওয়ার্ডে বিএনপি’র পাশাপাশি জামাতও প্রার্থী দিয়েছে। তবে দলীয় পরিচয় মূখ্য নয় সাধারণ ভোটারদের কাছে। মাদক নির্মূল, রাস্তাঘাট ও পয়:নিষ্কাশন ব্যবস্থার উন্নয়নে কাজ করবে এমন যোগ্য প্রার্থীকেই কাউন্সিলর হিসেবে বেছে নেবেন তারা। আগামী ১৫ মে’র নির্বাচনই নির্ধারণ হবে ৫৭ কাউন্সিলরের ভাগ্য।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন