গাজীপুরে ট্রনের বগি লাইনচ্যুত হয়ে মারা গেছে পাঁচজন

0

গাজীপুরের টঙ্গীতে ঢাকাগামী জামালপুর কমিউটার ট্রনের বগি লাইনচ্যুত হয়ে মারা গেছে পাঁচজন। আহত হয়েছে কমপক্ষে ৩০ জন। দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে, নতুনবাজার এলাকায় ঢাকা-জয়দেবেপুর রেল লাইনে এ ঘটনা ঘটে। দুর্ঘটনায় নিহতদের ক্ষতিপূরণ এবং আহতদের সহায়তার প্রতিশ্রুতি দিয়ে– দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানান রেলমন্ত্রী। দুর্ঘটনার প্রায় ছ’ঘন্টা পর, ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক হয়।

জামালপুর থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী জামালপুর কমিউটার ট্রেন টঙ্গীর নতুনবাজার এলাকায় পৌঁছালে দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে, পেছনের দু’টি বগি লাইনচ্যুত হয়। এসময় সেখানেই ট্রেনে কাটাপড়ে মারা যায় চারজন। জখম হয় কমপক্ষে ৩০ জন।

টঙ্গী ফায়ার সার্ভিসের র্কমীরা ও স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে বিভিন্ন হাসপাতাল ও ক্লিনিকে পাঠায়। গাজীপুররে পুলশি সুপার হারুন অর রশীদ জানান, ষ্টেশন মাষ্টারের ভুল সিগন্যালের কারনে– এ দুর্ঘটনা। তারা পলাতক রয়েছেন।

দুপুর দু’টোর দিকে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক। এসময় তিনি দুর্ঘটনার জন্য দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, নিহতদের ক্ষতিপুরন এবং আহতদের চিকিৎসা দেয়া হবে সরকারিভাবে। আশ্বাস দেন, তদন্ত সাপেক্ষে দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার।

এদিকে দুর্ঘটনার পর ঢাকা সাথে উত্তরাঞ্চলের সব ধরনের ট্রেন চলাচল কয়েক ঘন্টা বন্ধ হয়ে যায়। এতে দুর্ভোগে পড়েন, ময়মনসিংহ, খুলনা, রাজশাহী ও রংপুর বিভাগের হাজার হাজার ট্রেন যাত্রী।

এদিকে, কুষ্টিয়ার পোড়াদহ রেলওয়ে জংশনে ট্রেনে কাটা পড়ে মারা গেছে, মোটরসাইকেল আরোহী দুই স্কুল ছাত্র। দুপুরে লেভেল ক্রসিং পার হওয়ার সময়, এই দুর্ঘটনা ঘটে।

পোড়াদহ ষ্টেশন মাস্টার শরিফুল ইসলাম জানান, দুপুরে দৌলতদিয়া ঘাট থেকে পোড়াদহ পর্যন্ত চলাচলকারী সাটল ট্রেনের ইঞ্জিন ঘোরানো হচ্ছিল। এসময় সেখানকার লেভেল ক্রসিং গেইট বন্ধ থাকলেও, পাশ দিয়ে পার হতে গিয়ে– মোটরসাইকেল আরোহী দু’জন ইঞ্জিনের নীচে পড়ে। এতে সেখানেই একজন মারা যায়। অন্য আরোহীকে আহতাবস্থায় উদ্ধার করে– কুষ্টিয়া সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষনা করেন। নিহতরা হলো– মিরপুর উপজেলার আইলচারা গ্রামের ছাইদুল ইসলামের ছেলে অষ্টম শ্রেনির ছাত্র আয়াতুল্লাহ এবং অন্যজন নবম শ্রেনির ছাত্র মুবিন হোসেন।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন