গাছের প্রতি প্রতিনিয়ত বাড়ছে নগরবাসীর আগ্রহ

0

গাছের প্রতি প্রতিনিয়ত বাড়ছে নগরবাসীর আগ্রহ। বাড়ির আঙ্গিনা, ছাদ কিংবা বাসার বারান্দা ও ঘরের শোভা বর্ধনে, গাছকে বেছে নিচ্ছেন তারা। তাইতো রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে আজ দেখা গেছে গাছপ্রেমী মানুষের ভীড়। মেলায় এক’শটি স্টলে কয়েক’শ প্রজাতির গাছের পসরা সাজিয়ে বসেছেন বিক্রেতারা। ফলোজো, বনোজো, ঔষধি আর বাহারী ফুলের দেশি-বিদেশী গাছ রয়েছে মেলায়। গত বছরের চেয়ে বেচাকেনাও ভালো বলে জানান বিক্রেতারা।

অর্কিড, গুডলাকপ্লান, রঙ্গন, বেলী, ক্যাকটাস, হাসনা-হেনা, মধুমালতি, কেওয়া কিংবা দোলনচাঁপা– মন মাতানো সুরভিই ছড়াবে না– তাদের সৌন্দর্যও এনে দেবে চোখের প্রশান্তি। আর বাড়ির আঙ্গিনা, ছাদ কিংবা বারান্দায় আম, লিচু, পেয়রা, লটকন, রামবুথানি, স্ট্রবেরি’র উপস্থিতি সেই সৌন্দর্যে যোগ করবে ভিন্ন মাত্রা। এসবের পাশাপাশি নিম, আমলকি, অর্জুন, বাসক, তুলসি নাগেশ্বর, পুদিনা কিংবা থানকুনি’র মতো ঔষধি গাছগুলো দেবে সুস্থ জীবন ধারণের নিশ্চয়তা। তাইতো নগরবাসী মজেছেন এখন বৃক্ষপ্রেমে।

আটশোরও বেশি প্রজাতির দেশি-বিদেশি হাজারো গাছ ঠাঁই করে নিয়েছে মেলায়। ফলের ভারে নুয়ে পড়ছে ছোট্ট গাছগুলো। আবার বাহারি ফুলের গন্ধ আর সৌন্দর্য মুগ্ধ করেছে ক্রেতা ও দর্শণার্থীদের। মাসব্যাপী এই মেলার তৃতীয় দিনে ছুটির দিনে ছিলো বৃক্ষপ্রেমী মানুষের ভীড়। ঘর সাজাতে নারীদের পছন্দ ক্যাকটাস, অর্কিডের মতো ছোট আকৃতির গাছ। আর আম লিচু, পেয়ারার মতো ফলজ গাছের প্রতি ঝুঁকছেন পুরুষ ক্রেতারা। মেলার প্রথমদিনেই বিক্রি হয়েছে ২৫ হাজারেরও বেশি গাছ। গত বছরের চেয়ে এবার বিক্রি বাড়বে বলে আশা কর্তৃপক্ষের।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন