গণতন্ত্রের স্বার্থে ঐক্যফ্রন্টের বিজয়ীদের সংসদে এসে কথা বলা উচিত

0

গনতন্ত্রের স্বার্থে ঐক্যফ্রন্টের বিজয়ী প্রার্থীদের সংসদে এসে কথা বলা উচিত বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকলে দেশের উন্নয়ন হয় বলেই মানুষ ভোট দিয়েছে বলে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, আওয়ামী লীগ গত দশ বছরে জনগণের সেবক হিসেবে নিজেদের প্রতিষ্ঠিত করতে পেরেছে। শান্তির মধ্য দিয়েই সারাদেশে উন্নয়ন নিশ্চিত করা হবে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অভূতপূর্ব বিজয়ের পর কার্যনির্বাহী সংসদ ও উপদেষ্টা পরিষদকে নিয়ে আওয়ামী লীগ সভাপতির এটিই প্রথম আনুষ্ঠানিক বৈঠক। শনিবার, রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এ যৌথ সভায় উঠে আসে নির্বাচনে পরবর্তী করনীয় সম্পর্কে।

সংগঠনকে আরো শক্তিশালী করার প্রতি জোর দিয়ে আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, জনগণ বিশ্বাস ও আস্থা রেখেছে বলে দায়িত্ব বহুগুন বেড়ে গেছে। ঘোষিত ইশতেহার পূরন করে উন্নয়নের সুফল তৃণমূলে পৌঁছে দিতে হবে। বিপুল ম্যান্ডেট দেয়ায় জনগনের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন তিনি।

বিএনপি নির্বাচন বানচালের চেষ্টা করেছিল-অভিযোগ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, বিএনপির শীর্ষ নেতৃত্ব দুর্নীতিগ্রস্ত, সাজাপ্রাপ্ত এবং পলাতক আসামি বলেই জনগণ নির্বাচনে তাদের প্রত্যাখান করেছে।

জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট থেকে ধানের শীষে একাদশ জাতীয় নির্বাচনে যে কয়জন জনপ্রতিনিধি নির্বাচিত হয়েছেন, গণতন্ত্রের স্বার্থে তাদের সংসদে আসা উচিত বলেও মন্তব্য করেন সরকার প্রধান।

আওয়ামী লীগ টানা ক্ষমতায় ছিল বলে প্রতিটি খাতে অর্জন হয়েছে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, এ অর্জন ও বিশ্বের স্বীকৃতি ধরে রাখতে হবে।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন