খুলনা সিটি নির্বাচনে জালভোট, কেন্দ্র দখল, ভাংচুর, ব্যালট বাক্স ছিনিয়ে নেয়া এবং কেন্দ্র স্থগিতের ঘটনা ঘটেছে

0

খুলনা সিটি নির্বাচনে জালভোট, কেন্দ্র দখল, ভাংচুর, ব্যালট বাক্স ছিনিয়ে নেয়া এবং কেন্দ্র স্থগিতের ঘটনা ঘটেছে। ভোট শুরুর কয়েকঘন্টা পর, ২৪ নম্বর ওয়ার্ডে ইকবাল নগর মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয় কেন্দ্র স্থগিত এবং বিকেলে ৩১ নম্বর ওয়ার্ডের ২৭৮ নম্বর কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ স্থগিত করে নির্বাচন কমিশন। এছাড়া ভোটকেন্দ্রের বাইরে বিএনপি’র পাঁচটি নির্বাচনী ক্যাম্পে ভাংচুরের অভিযোগ উঠেছে। মিজান আহমেদ, মাঈনুল শোভন ও সুনীল দাসের পাঠানো তথ্য ও ছবি নিয়ে, বিস্তারিত জানাচ্ছেন বাতেন বিপ্লব।
নাগরিক অধিকারের সর্বোচ্চ প্রাপ্তি নিজের ভোটটি হারিয়ে ফেলেছেন রাহেলা বেগম। তার নামে অন্যকেউ জালভোট দিয়ে গেছেন। কয়েকটি নির্বাচনী কেন্দ্রে এমন অভিযোগ তুলেছেন ভোটাররা। খুলনার আলিয়া মাদ্রাসা ভোটকেন্দ্রে প্রিজাইডিং অফিসারের সামনে থাকা ব্যালট পেপারে এভাবেই সিলমারার চিত্র উঠে আসে ক্যামেরায়।

এমনকি এখানকার নারী ভোটকেন্দ্রে পুরুষদের ভোট দিতে দেখা যায়। ভোটার না হওয়া বেশ ক’জন যুবকের আনাগোনাও চোখে পড়ে ভোট কেন্দ্রে। নগরীর একটি কেন্দ্র থেকে দুর্বৃত্তদের ধাওয়া খেয়ে পুলিশের কাছে সহযোগিতা চায় ক’জন ভোটার। কিন্তু এসব অভিযোগ মানতে নারাজ প্রিজাইডিং অফিসার। তবে একটি ঘটনার প্রমাণ দেখানোর পর, বেকায়দায় পড়েন এই কর্মকর্তা। এদিকে, জালভোট, কেন্দ্র দখল ও ভাংচুরের ঘটনায় ইকবাল নগর মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয় কেন্দ্রের ভোটগ্রহণ স্থগিত করেছে নির্বাচন কমিশন। তবে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী তৎপর থাকায়, খুলনা সিটি নির্বাচনে বড় ধরনের নাশকতার খবর পাওয়া যায়নি।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন