খুচরা বাজারে আমদানি করা চালের দাম বেড়েছে কেজিতে চার টাকা

0

চলতি বাজেটে আবারো ২৮ শতাংশ শুল্ক বাড়ানোয় খুচরা বাজারে আমদানি করা চালের দাম বেড়েছে কেজিতে ৩ থেকে ৪ টাকা। তবে উৎপাদক পর্যায়ে ধানের ন্যায্যমূল্য নিশ্চিতে শুল্ক বাড়ানো হলেও, কৃষকদের লাভ হয়নি বলে জানান চাল ব্যবসায়ীরা। এদিকে, দেশীয় মোটা চালের দাম কিছুটা বাড়লেও স্থিতিশীল রয়েছে বিভিন্ন জাতের চালের দাম।

দফায় দফায় বন্যা ছাড়াও বিভিন্ন প্রাকৃতিক দুর্যোগে ফসলহানি হওয়ায় গেল বছর অস্বাভাবিক হারে বেড়ে যায় চালের দাম। বাজার নিয়ন্ত্রণে চাল আমদানি শুল্ক ২৮ ভাগ থেকে প্রথম ১০ এবং পরে ২ ভাগে নামিয়ে আনে সরকার। এতে অনেকটাই স্বাভাবিক হয়েছিলো চালের দাম। কিন্তু চলতি অর্থবছরে আবারো শুল্ক বাড়ানোয় বেড়েছে আমদানি করা চালের দাম।

মাত্র এক মাসের ব্যবধানে ৩৮ টাকার আমদানি করা স্বর্ণা, বর্তমানে খুচরা বাজারে বিক্রি হচ্ছে ৪৩ থেকে ৪৪ টাকায়। এছাড়া ৫০ টাকার নাজিরশাইল ৫৪ এবং ৪৬ টাকার মিনিকেট বিক্রি হচ্ছে ৪৯ টাকায়। দেশী মোটা চালও কেজিতে ৪ টাকা বেড়ে বিক্রি হচ্ছে ৪২ টাকায়।

ব্যবসায়ীদের দাবি, কৃষকের ন্যায্য মূল্য নিশ্চিত করতে আমদানি শুল্ক বাড়লেও পাইকারী বাজারে প্রভাব পড়েনি। বর্তমানে চালের পর্যাপ্ত মজুদ রয়েছে বলেও জানান এই ব্যবসায়ী নেতা।

বর্তমানে চালের বিক্রি কম উল্লেখ করে আমদানি শুল্ক বাড়ানোর পক্ষেও মত দেন ব্যবসায়ীরা।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন