ক্রিকেট মাঠে সময়ের ব্যবহারে নতুন নিয়মের কথা চিন্তা করছে আইসিসি

0

ক্রিকেট মাঠে সময়ের ব্যবহারে নতুন নিয়মের কথা চিন্তা করছে– আইসিসি। আইসিসির বিশেষজ্ঞ কমিটি স্লো ওভার রেট অপরাধ রোধে নতুন কিছু নিয়ম প্রবর্তন করতে যাচ্ছে। যার নাম দেয়া হয়েছে শট ক্লক। তবে, পর্যালোচনার পরই চূড়ান্ত অনুমোদন দেবে আইসিসি।

সময় যেনো এখন চিন্তার কারন। ক্রিকেট মাঠে সময়ের ব্যবহারের ক্ষেত্রে বরাবরই সচেতন আইসিসি। টেস্ট, ওয়ানডে আর টি-টুয়েন্টি তিন ফরম্যাটেই প্রতিটি ইনিংসের জন্য বেঁধে দেয়া হয় নির্দিষ্ট সময়। যা অতিক্রম করলে জরিমানা ও নিষেধাজ্ঞার মুখোমুখি হতে হয় বোলিং দলের অধিনায়ক ও খেলোয়াড়দের। তবে, এই শাস্তির মাধ্যমেও থামানো যাচ্ছে না ‘স্লো ওভার রেট’ এর অপরাধ। বরং আইসিসির বিশেষজ্ঞ কমিটির প্রতিবেদন জানাচ্ছে যে গত ১২ মাসে স্লো ওভার রেটের মাত্রা টেস্ট ক্রিকেটে গত ১১ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ। আর টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের ইতিহাসে ভেঙ্গে গেছে আগের সব রেকর্ড।

অস্ট্রেলিয়ান রিকি পন্টিং, ভারতের সৌরভ গাঙ্গুলি, শ্রীলঙ্কান কুমার সাঙ্গাকারাদের নিয়ে গড়া আইসিসির বিশেষজ্ঞ কমিটি এই স্লো ওভার রেটের সমস্যার সমাধানে বেড় করেছে নতুন এক পন্থা। যাকে তারা নাম দিয়েছে ‘শট ক্লক’। বাস্কটবলে যে নিয়মটি পরীক্ষিত। শট ক্লক নিয়মের আওতায় প্রতি বল শেষে ও দুই ওভারের মধ্যবর্তী সময়, ব্যাটসম্যান আউট হওয়ার পরে নতুন ব্যাটসম্যান আসা পর্যন্ত সময় এবং উদযাপন সহ খেলার মাঝে আরো অন্যান্য আনুষঙ্গিক সময়গুলোকে হিসেবে রাখা হবে। তা যদি আইসিসির বেঁধে দেয়া সময়ের চেয়ে বেশি হয় তাহলে তাৎক্ষণিকভাবে অভিযুক্ত দলকে নির্দিষ্টসংখ্যক রান জরিমানা করা হবে। বাড়তি শাস্তি ও জরিমানা প্রয়োগের কথাও বলেছেন বিশেষজ্ঞ কমিটি। সেক্ষেত্রে রান পেনাল্টিকে উপযোগী মনে করছেন তারা। বর্তমান নিয়ম অনুযায়ী ম্যাচফি কেটে নেওয়া ও অধিনায়কের নিষেধাজ্ঞাকেও শাস্তি হিসেবে ধরা হচ্ছে। তবে আরও কয়েক দফা আলোচনা ও বিশ্লেষণের পরই নির্ধারিত হবে ক্রিকেটে সময় অপচয় কমানোর নতুন নিয়ম।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন