কোন রোহিঙ্গাকেই জোরপূর্বক মিয়ানমারে পাঠানো হবে না

0

কোন রোহিঙ্গাকেই জোরপূর্বক মিয়ানমারে পাঠানো হবে না। এমন কথা জানিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন বলেছেন, রোহিঙ্গারা যেন নির্ভয়ে তাদের দেশে ফিরতে পারে, সেলক্ষ্যে মিয়ানমারের শুভ বোধদয়ের ব্যাপারে আশাবাদী বাংলাদেশ। দুপুরে রাজধানীতে এক অনুষ্ঠান শেষে তিনি আরো বলেন, ভাসানচরে রোহিঙ্গা শরণার্থীদের স্থানান্তরের বিষয়ে এখনও সিদ্ধান্ত হয়নি।

মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের ফেলে আসা বিধ্বস্ত ঘরবাড়ি অপসারণ করে, সেখানে সরকারি স্থাপনা বানানো হচ্ছে এমন খবর মিডিয়ায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করেছে। বাংলাদেশ যখন প্রত্যাবাসনের চেষ্টা করছে, তখন স্বাভাবিকভাবেই প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়া নিয়ে প্রশ্নে উঠছে।

ঢাকায় পিকেএসএফ ভবনে টেকসই উন্নয়ন অভীষ্ট- ৩ : সুস্বাস্থ্য ও কল্যাণ বিষয়ক সেমিনার শেষে সাংবাদিকরা মুখোমুখি হয়ে, এ বিষয়ে কথা বলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

তিনি বলেন, রাখাইনের পরিস্থিতি সরেজমিন দেখাতে, মিয়ানমার কয়েকজন রাষ্ট্রদূতকে নিতে সম্মতি জানিয়েছে।এটা আশাব্যঞ্জক।

ভাসানচরে রোহিঙ্গা শরণার্থীদের স্থানান্তরের বিষয়ে এখনও সিদ্ধান্ত হয়নি জানিয়ে ড. এ কে আবদুল মোমেন বলেন, জোর করে রোহিঙ্গাদের কোথাও পাঠানো হবে না।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন